Bahumatrik | বহুমাত্রিক

সরকার নিবন্ধিত বিশেষায়িত অনলাইন গণমাধ্যম

ফাল্গুন ১৮ ১৪৩০, শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪

স্পটিফাই ট্যাটু :যে ঝক্কি পোহাতে হতে পারে

বহুমাত্রিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯:২৭, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আপডেট: ১৯:২৮, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

প্রিন্ট:

স্পটিফাই ট্যাটু :যে ঝক্কি পোহাতে হতে পারে

ছবি- সংগৃহীত

দেখতে ওয়েভ-ফর্ম বা তরঙ্গ আকৃতির এই কোডকে ফোনের ক্যামেরা দিয়ে স্ক্যান করলে সাথে সাথে যে কারো স্পটিফাই অ্যাপে বাজতে শুরু করবে কোডে থাকা নির্দিষ্ট গান। এই কোডটিকেই আবার অনেকে নিজের শরীরে ট্যাটু করে রাখেন।
ফোনের স্পিড ডায়াল সম্পর্কে সবারই কম-বেশি ধারণা আছে। স্পিড ডায়ালের নির্দিষ্ট একটি বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথে ফোন চলে যায় ওই ব্যক্তির কাছে। স্পটিফাই কোডও ঠিক একইরকম। আপনার খুব প্রিয় গানকেও এমনভাবে কিউআর কোডের মতো একটি কোডের ভেতর সেইভ করে রাখা যায়। দেখতে ওয়েভ-ফর্ম বা তরঙ্গ আকৃতির এই কোডকে ফোনের ক্যামেরা দিয়ে স্ক্যান করলে সাথে সাথে যে কারো স্পটিফাই অ্যাপে বাজতে শুরু করবে কোডে থাকা নির্দিষ্ট গান। 

এই কোডটিকেই আবার অনেকে নিজের শরীরে ট্যাটু করে রাখেন। কারো বাহুতে বা শরীরের অন্য কোনো স্থানে আঁকা ট্যাটু আপনার মোবাইলের ক্যামেরা দিয়ে স্ক্যান করলেই কোডে থাকা গান শুনতে পারবেন। 

২০১৭ সালে স্পটিফাই কোড আসার পর থেকেই আস্তে আস্তে 'স্পটিফাই ট্যাটু' জনপ্রিয় হতে থাকে। বিশেষত টিকটক এবং ইনস্টাগ্রামের মতো প্লাটফর্মে বিভিন্ন রিলস ও ভিডিওতে অনেককে দেখা যায় এরকম ট্যাটু নিজের শরীরে আঁকতে। 
টিকটকে #স্পটিফাইট্যাটু ট্যাগযুক্ত ভিডিওগুলো প্রায় ১৫ মিলিয়ন ভিউ পেয়েছে। এর মধ্যে ১০ মিলিয়ন ভিউ যুক্তরাজ্য ভিত্তিক একজন ট্যাটু শিল্পীর একটি ভাইরাল ভিডিও ক্লিপে। ভিডিওতে দেখা যায়, তিনি তার বন্ধুর হাতে আঁকা স্পটিফাই কোড থেকে গান বাজিয়ে দেখাচ্ছিলেন। গানটি ছিল ক্রিস্টিনা পেরির 'এ থাউজেন্ড ইয়ার্স'। বিয়ের দিনের গান হওয়ায় গানটি তার বন্ধুর কাছে অনেক বিশেষ ছিল। 

গত কয়েক বছরে এরকম অন্তত কয়েকশো মানুষ তাদের শরীরে তাদের প্রিয় গানের ট্যাটু করিয়েছেন। সেগুলো আবার টিকটক বা ইন্সটাগ্রামে পোস্টও করেছেন প্রিয় শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা বা ট্রিবিউট দেখাতে। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক বিবৃতিতে স্পটিফাই-এর পক্ষ থেকে বলা হয়, 'আমাদের ভালোই লাগে যে শ্রোতারা তাদের পছন্দের স্পটিফাই কোডের ট্যাটু আঁকছেন এবং ব্যাপারটাকে জনপ্রিয় করতে সাহায্য করছেন।' এ বিষয়ে আরও মন্তব্যের জন্য স্পটিফাইয়ের সাথে যোগাযোগ করেছে সিএনএন।

কলোরাডোর ট্যাটু শিল্পী জন ল্যাপিডস জানিয়েছেন, এরকম কোডের ট্যাটু আঁকাটা একটু ঝামেলাদায়ক। কারণ ট্যাটু আঁকার পর ওই কোড আদৌ কাজ করবে কিনা তা মূল চিন্তার কারণ থেকে যায়। স্ক্যান করে স্পটিফাইয়ে গান না বাজলে পুরো কষ্টটাই বৃথা হয়ে যায় তখন। 

কাজটা কঠিন হলেও ল্যাপিডস এখন পর্যন্ত দুটি স্পটিফাই ট্যাটু কোড সফলভাবে এঁকেছেন। একটি ২০২২ সালের নভেম্বরে মাইকেল বুবলের 'এভরিথিং' গানের জন্য এবং অন্যটি একই বছরের ডিসেম্বরে দ্য অফস্প্রিংয়ের 'গোন অ্যাওয়ে' এর জন্য।

ল্যাপিডস বলেন, 'আমি তাদের বলেছিলাম, যদি এটি স্ক্যানযোগ্য হয় তাহলে তো ভালোই, আর যদি স্ক্যান করা না যায় তবে আমি দুঃখিত। এরকম ট্যাটু করাতে হলে একটু ঝুঁকি থাকবেই। তবে, আমরা যখন শেষ করেছি তখন এটি স্ক্যানযোগ্য ছিল।'

লোকেরা বিভিন্ন কারণে এই ট্যাটুগুলো আঁকেন। কেউ কেউ পার্টিতে মজাদার ট্রিকস দেখাতে, কেউ বা কোনো বিশেষ স্মৃতি নিজের মধ্যে আগলে রাখতে। 

ল্যাপিডস জানান, তার প্রথম স্পটিফাই কোড গ্রাহক এমন একটি গান বেছে নিয়েছিলেন যা ওই গ্রাহককে তার প্রয়াত বাবার স্মৃতি মনে করিয়ে দেয়। গানটি সবসময় তার শরীরে থাকায়  তার কাছে লাগে তার বাবা সবসময়ই তার সাথে আছেন। 

উইসকনসিনের ম্যাডিসনের 'ব্লু লোটাস ট্যাটু অ্যান্ড দ্য পিয়ার্সিং লাউঞ্জ'র ট্যাটু শিল্পী ড্রিউ হিবার্ডের মতে, কখনও কখনও অনেকে শুধু নিজের শরীরকে সাজানোর উদ্দেশ্যে স্পটিফাই ট্যাটু আঁকিয়ে থাকেন। 

তিনি বলেন, 'জীবন ছোট। ছোট্ট এ জীবনে আমি নিজেই অনেক অদ্ভুত, মজাদার ট্যাটু আঁকিয়েছি। আমার প্রতিটি ট্যাটু আমার জীবনের একেকটি অংশকে প্রতিফলিত করে।' 

কীভাবে একটি স্পটিফাই কোডকে ট্যাটু করবেন?

একটি স্পটিফাই কোডকে ট্যাটুতে রূপ দেওয়ার জন্য প্রথমে কোডের একটি পরিষ্কার ছবি তোলা হয়। ছবিটি একটি রেফারেন্স হিসেবে কাজ করে। অন্য যে কোনও ডিজাইনের ট্যাটু আঁকার মতো, কোডটি পিছনে কালি দিয়ে একটি বিশেষ ট্রান্সফার কাগজে মুদ্রিত হয়। এই ট্রান্সফার কাগজটির মাধ্যমে ডিজাইনটি সঠিকভাবে ত্বকে প্রয়োগ করা যায়।

মুদ্রিত নকশা একটি স্টেনসিল হিসাবে কাজ করে এবং নির্ভুলভাবে কাজ করার জন্য ট্যাটু শিল্পীর জন্য একটি গাইডলাইন প্রদান করে। তারপর ট্যাটু মেশিনের সাহায্যে বেগুনি স্টেনসিল লাইনগুলো সাবধানতার সাথে অনুসরণ করে আঁকা হয়। এই প্রক্রিয়ায় খেয়াল রাখা হয় সমস্ত সরল রেখা যাতে সোজা থাকে, সমান্তরাল রেখাগুলো যাতে সমান্তরাল থাকে এবং বৃত্তাকার আকৃতিগুলো যাতে বজায় থাকে।

কীভাবে আঁকলে নির্ভুল কাজ করবে?

স্পটিফাই কোড ট্যাটুর স্ক্যানযোগ্য হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ানোর জন্য, বেশ কয়েকটি কারণ বিবেচনায় রাখতে হয়। প্রথমত, ট্যাটুর বিকৃতি হ্রাস করতে এবং ক্যামেরা দ্বারা সহজে স্ক্যান করার সুবিধার্থে ট্যাটুটি একটি শরীরের সমতল স্থানে আঁকতে হবে। এর জন্য আদর্শ স্থান হল কব্জি বা কনুইয়ের কাছাকাছি অবস্থিত ফোরআর্ম (কনুই হইতে হাতের কব্জি পর্যন্ত হাতের অংশ) । 

এছাড়া, ট্যাটু লাইনের প্রস্থ ও ঘনত্বকে বিবেচনা রাখতে হবে। কোডের লাইনগুলোর উচ্চতার পার্থক্য থাকে। সঠিকভাবে স্ক্যান করার জন্য লাইনগুলোকে সোজা, প্রতিসম বজায় রাখা অত্যাবশ্যক। কিছুটা পাতলা লাইন ব্যবহার করা উপকারী হতে পারে, কারণ এটি নিশ্চিত করে যে, ত্বকের বয়স বৃদ্ধি বা ত্বক প্রসারিত হওয়ার সাথে সাথে লাইনগুলো যাতে খুব প্রসারিত হয়ে না যায়। 

ট্যাটুগুলোর স্থায়িত্ব কতদিন?

স্পটিফাই ট্যাটুগুলোকে এখন কার্যকর মনে হলেও এদের দীর্ঘায়ু নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়। প্রযুক্তি বিকশিত হওয়ার সাথে সাথে স্পটিফাই কোড কি এমনই থাকবে নাকি কিউআর কোডে রূপ নিবে, তা নিয়ে দ্বিধা থেকে যায়। 

তাছাড়া, আজ থেকে ১০ থেকে ২০ বছর পরে এগুলো স্ক্যানযোগ্য থাকবে কি না, তা-ও নিশ্চিত করে বলা সম্ভব না। কারণ সময়ের সাথে সাথে মানুষের ওজনের পরিবর্তন হয় কিংবা নারীরা গর্ভবতী হয়। তবে আশা করা যায়, ট্যাটুর জন্য হালকা করে ফাঁকা স্থান রাখলে ত্বক প্রসারিত হলেও তা স্ক্যানযোগ্য থাকবে। 

ট্যাটু আঁকার সময় এর আকার বিবেচনায় রাখতে হবে। দুই ইঞ্চির ট্যাটু থেকে চার বা পাঁচ ইঞ্চি আকারের ট্যাটু বেশিদিন স্থায়ী হয়। এছাড়া, ট্যাটু সম্পন্ন হওয়ার পরে সঠিকভাবে যত্ন নেওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ট্যাটু শিল্পীর দেয়া নির্দেশনা অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে, ট্যাটুর জায়গা নিয়মিত ময়েশ্চারাইজ করতে হবে। যথাযথ যত্ন ট্যাটুর চেহারা বজায় রাখতে সহায়তা করে।

Walton Refrigerator Freezer
Walton Refrigerator Freezer