Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
১২ আশ্বিন ১৪২৭, রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৬:০৫ পূর্বাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

নেতাজিকে নিয়ে চক্রান্ত আজও অব্যাহত: ডঃ জয়ন্ত চৌধুরী


২১ আগস্ট ২০২০ শুক্রবার, ০৯:২৬  পিএম

সৌমিকা ভট্টাচার্য

বহুমাত্রিক.কম


নেতাজিকে নিয়ে চক্রান্ত আজও অব্যাহত: ডঃ জয়ন্ত চৌধুরী

বিশিষ্ট নেতাজি বিশেষজ্ঞ ডঃ জয়ন্ত চৌধুরী বলেছেন, ১৮ অগাস্টকে (১৯৪৫) এখনো নেতাজির মৃত্যুদিবস হিসেবে পালন করা ভারতবাসীর জন্য দুর্ভাগ্যজনক। যে প্লেন দুর্ঘটনায় নেতাজির মৃত্যুর গল্প রটানো হচ্ছে বছরের পর বছর তথাকথিত সেই দুর্ঘটনার কোন নির্ভরযোগ্য সঠিক প্রমাণ আদৌ মেলেনি।

‘নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর অন্তর্ধান রহস্য’ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের বিজয়গড় জ্যোতিষ রায় কলেজের সাংবাদিকতা ও গনজ্ঞাপণ বিভাগ আয়োজিত ওয়েবিনারে প্রধান বক্তা হিসেবে প্রদত্ত বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। আশৈশব নেতাজি সাধনায় নিবেদিত গবেষক জয়ন্ত চৌধুরী বলেন, ‘‘বিচারপতি মনোজ মুখার্জী কমিশনকে তাইওয়ান সরকার স্পষ্টভাবে জানিয়েছে ওইদিন কোন প্লেন দুর্ঘটনাই হয়নি। আমরা জানতে পারছি, অ্যাংলো-আমেরিকান ফোর্সকে ধোকা দিতে নেতাজি নিজে সাজিয়েছিলেন এই ঘটনা। হাজারো তথ্যের প্রমাণ দিয়ে আমরা দাবি করতে পারি ১৮ আগস্ট ১৯৪৫ বিমান দুর্ঘটনায় নেতাজি মারা যাননি।’’

‘‘সেই সময় ১২টি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল নেতাজির অন্তর্ধান রহস্যের কিনারা করতে। অনেক ক্ষেত্রে গবেষণায় এমন তথ্যও উঠে আসে যে তৎকালীন যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে হিরোশিমা ও নাগাসাকিতে পারমাণবিক বোমা ফেলা হয়েছিল নেতাজিকে মারার জন্যই।’’-যোগ করেন ডঃ চৌধুরী। 

ক্ষমতা নির্বিঘ্ন করতে নেতাজি সম্পর্কে অনেক আজগুবি তথ্যও রটানো হয়েছিল দাবি করে তিনি বলেন, ‘আজাদ হিন্দ ফৌজের সৈনিকদের ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল এবং তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরু নোটিশ দিয়েছিলেন ওই সৈনিকদের যাতে ভারতীয় সেনাতে নিয়োগ না করা হয়। বিভিন্ন দিক থেকেই নেতাজিকে ছোটো করার অনেক প্রয়াস দেখা গেছে। গবেষণা থেকে উঠে আসে, আজাদ হিন্দ ব্যাংকের কোটি কোটি অর্থ ভাগ হয়ে গিয়েছিল কিছু মানুষের মধ্যে। নেতাজিকে ভারতবর্ষে ফিরিয়ে না আনার জন্য এত চক্রান্ত করা হয়েছিল, যা আজও অব্যাহত।’

জয়ন্ত চৌধুরী তরুণ প্রজন্মকে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের পুরোধা পুরুষ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে নিয়ে এই মিথ্যচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবার আহ্বান জানান। তিনি মনে করেন, দেশপ্রেমিক প্রজন্মই নেতাজি ও সকল স্বাধীনতা সংগ্রামীদের যোগ্য সম্মানের আসনে অধিষ্ঠিত করতে পারেন।

ওয়েবিনার আয়োজক কলেজের সাংবাদিকতা ও গনজ্ঞাপণ বিভাগের শিক্ষক অর্নবের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন বিজয়গড় কলেজের অধ্যক্ষ্য ডঃ রাজ্যশ্রী নিয়োগী, এডুকেশন বিভাগের অধ্যাপক ড .অমলেন্দু মজুমদারসহ অন্যরা। 

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।