Bahumatrik | বহুমাত্রিক

সরকার নিবন্ধিত বিশেষায়িত অনলাইন গণমাধ্যম

জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪৩১, মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪

তীব্র তাপদাহে জবিতে কুকুর-বিড়ালের জন্য খাবারের নির্দেশ উপাচার্যের

জবি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৮:৩৭, ২২ এপ্রিল ২০২৪

প্রিন্ট:

তীব্র তাপদাহে জবিতে কুকুর-বিড়ালের জন্য খাবারের নির্দেশ উপাচার্যের

ছবি: বহুমাত্রিক.কম

তীব্র তাপদাহে এক সপ্তাহ অনলাইনে ক্লাস নেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। এতে বন্ধ থাকবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যান্টিন। তাই খাদ্য সংকটে থাকা ক্যাম্পাসের কুকুর ও বিড়ালের জন্য প্রতিদিন খাবারের ব্যবস্থা করতে নির্দেশ দিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম। এরআগে রমজানের ঈদের ছুটিতেও কুকুর ও বিড়ালের প্রতিদিন খাবারের ব্যবস্থা করা হয়।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখার কর্মকর্তা ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. শাহাদাৎ হোসেন তুষার বলেন, রোজার ঈদের ছুটিতে ক্যান্টিন বন্ধ হয়ে যায়। ক্যান্টিনের উচ্ছিষ্ট খাবারই কুকুর বিড়াল খেল। তাই খাদ্য সংকটে তাদের জন্য প্রতিদিন ভিসি ম্যাডাম খাবারের ব্যবস্থা করতে বলেন। আমরা প্রতিদিন কুকুরের জন্য খাবার দিয়েছি। তীব্র তাপমাত্রার কারণে অনলাইনে ক্লাস নেবার সিদ্ধান্তে ক্যান্টিন বন্ধ থাকবে। তাই ভিসি মহোদয় পুনরায় ক্যাস্পাসের কুকুর ও বিড়ালের জন্য খাবার দিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

নিরাপত্তা কর্মী নুর ইসলাস প্রতিদিন এ খাবার কেনেন। তিনি বলেন, বাচ্চা মিলে ক্যাম্পাসে ২৫-৩০ টা মতো কুুকুর আছে। তাদের জন্য প্রতিদিন মুরগির গিলা, কলিজা, পা, চামড়া কেনা হয়। ভাত খেতে চায় না। ওগুলোই খায়। প্রতিদিন সকালে ও বিকালে খাবার কিনে আনি। ১৫০-২০০ টাকার খাবার কেনা হয় প্রতিদিন। আমি খাবার নিয়ে আসলেই পেছনে পেছনে সব কুকুর চলে আসে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম বলেন, তীব্র তাপদাহে ক্যাম্পাসে অনলাইনে ক্লাস নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ক্যান্টিন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্যাম্পাসের কুকুর বিড়াল খাবার পায় না। তাই তাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করতে বলেছি। শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের মতো ওই প্রাণিদেরও ক্যাম্পাস এটি।

Walton Refrigerator Freezer
Walton Refrigerator Freezer