Bahumatrik | বহুমাত্রিক

সরকার নিবন্ধিত বিশেষায়িত অনলাইন গণমাধ্যম

শ্রাবণ ৯ ১৪৩১, বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪

জামালপুর-মাদারগঞ্জ সড়কে ঝুঁকিপূর্ণ ৬ বেইলি ব্রিজ

জামালপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৪:৩৮, ২১ এপ্রিল ২০১৫

আপডেট: ২৩:৪০, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

প্রিন্ট:

জামালপুর-মাদারগঞ্জ সড়কে ঝুঁকিপূর্ণ ৬ বেইলি ব্রিজ

জামালপুর: জামালপুর-মাদারগঞ্জ সড়কের ৬টি বেইলি ব্রিজই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। বিকল্প সড়ক না থাকায় প্রতিদিন বাধ্য হয়েই ঝুঁকিপূর্ণ এসব সেতু দিয়ে যানবাহনসহ হাজার হাজার যাত্রী চলাচল করছে।

যাতায়াতের অনুপযোগী এসব সেতুর ওপর দিয়ে অতিরিক্ত মালামাল নিয়ে ট্রাকসহ ভারী যানবাহন চলাচল করায় প্রতি বছরই ছোট-বড় দুর্ঘটনা ঘটছে।

জামালপুর জেলা সদর থেকে মাদারগঞ্জ উপজেলায় যাতায়াত ব্যবস্থা সহজতর করার জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগ সদর, মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ অংশে ২০০০ সালে ছোট-বড় ৬টি বেইলি সেতু নির্মাণ করে। এক যুগেরও বেশি সময় আগে নির্মাণ করা এসব সেতুর নাট-বোল্ট এবং প্লেট নষ্ট হয়ে যাওয়ায় মাঝে-মধ্যে জোড়াতালি দিয়ে সচল রাখা হয়।

নড়বড়ে সেতু দিয়ে প্রতিদিন মাদারগঞ্জ থেকে জামালপুর জেলা সদরে ২০ থেকে ২৫ হাজার মানুষ যাতায়াত করছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ সেতুগুলো ঝুঁকিপূর্ণ উল্লেখ করে ৫ টনের অধিক ভারী যানবাহন চলাচল নিষেধ করে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিয়েছে। তবে সড়ক ও জনপথ বিভাগের এই সতর্কবার্তা যানবাহনের চালকরা তোয়াক্কাই করছেন না।

১৫ থেকে ২০ টন মালামাল নিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ সেতুগুলোর ওপর দিয়ে ট্রাকসহ ভারী যানবাহন চলাচল করছে। গত বছর তিনশ’ বস্তা লবণ নিয়ে কক্সবাজার থেকে মাদারগঞ্জ উপজেলায় যাওয়ার সময় ঝুঁকিপূর্ণ দাঁতভাঙ্গা সেতুর একাংশ ভেঙে ট্রাক নদীতে পড়ে যায়।

এর আগেও ২০০৯ সালে অতিরিক্ত মালামাল নিয়ে পার হওয়ার সময় দাঁতভাঙ্গা সেতুর একাংশ ভেঙে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে। অপরদিকে সেতুগুলো একমুখী হওয়ায় ট্রাক-বাসসহ বড় যানবাহন পারাপারের সময় সেতুর উভয়প্রান্তে যানজট সৃষ্টি হয়।

ট্রাকচালক রহমতুল্লাহ শেখ জানান, প্রায় ১০ বছর ধরে তিনি এ রাস্তায় গাড়ি চালান। তিনি সেই সময় থেকেই ব্রিজগুলো ভাঙা দেখছেন। ব্রিজের অবস্থা বেশি খারাপ হয়ে গেলে মাঝে-মধ্যে ঝালাই করা হয়। গাড়ি নিয়ে ব্রিজের ওপর উঠলে ব্রিজ কেঁপে ওঠে। মনে হয় ব্রিজটা এখনই ভেঙে পড়বে।

অটোরিকশাচালক জালাল জানান, ব্রিজগুলো অনেক সরু। ব্রিজের উপরে একটা বড় গাড়ি উঠলে তাদের আরেক পাশে অনেক সময় লাইন ধরে অপো করতে হয়। সে জন্য সময় নষ্ট হয়।
সরেজমিন দেখা গেছে, জামালপুর-মাদারগঞ্জ সড়কের ছোট-বড় ৬টি সেতুর পাটাতনগুলোতে অসংখ্য ফাটল দেখা দিয়েছে। পাটাতনের ফাটলগুলো বন্ধ করতে ব্রিজের একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রাপ্ত পর্যন্ত ঝালাই করে অসংখ্য জোড়া-তালি দেয়া হয়েছে।

ব্রিজের উপর দিয়ে গাড়ি চলাচলের সময় নড়বড়ে পাটাতনের বিকট শব্দ হয়। কোনো কোনো জায়গায় লোহার ফ্রেমের ওপর বসানো প্লেটগুলো নড়বড়ে হয়ে যাওয়ায় কোনো গাড়ি ব্রিজের ওপর উঠলে একপাশ নিচে এবং অপরপাশ উপরে উঠে যাচ্ছে। ফলে যে কোনো সময় লোহার ফ্রেমের ওপর অস্থায়ী অবস্থায় বসানো পাটাতন সরে গিয়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

জামালপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ ওয়াহেদুজ্জামান সেতুগুলো ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার কথা স্বীকার করে জানান, সম্প্রতি দুটি নতুন ব্রিজ নির্মাণের জন্য দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে এবং খুব দ্রুত ব্রিজের কাজ শুরু করা হবে। এছাড়াও বাকি সেতুগুলোর ব্যাপারেও দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

বহুমাত্রিক.কম

Walton Refrigerator Freezer
Walton Refrigerator Freezer