Bahumatrik | বহুমাত্রিক

সরকার নিবন্ধিত বিশেষায়িত অনলাইন গণমাধ্যম

ফাল্গুন ১৬ ১৪৩০, বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

হারিয়ে যাওয়া মহাকাশযান ফিরে পেল নাসা

বহুমাত্রিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:৪৮, ৫ আগস্ট ২০২৩

প্রিন্ট:

হারিয়ে যাওয়া মহাকাশযান ফিরে পেল নাসা

ফাইল ছবি

নাসা তার মহাকাশযান ভয়েজার-২-এর সঙ্গে হারানো সংযোগ পুনরায় ফিরে পেতে সক্ষম হয়েছে। ১৯৭৭ সালে মহাকাশে এটি পাঠিয়েছিল নাসা। এ বছরের জুলাই মাসে নাসা থেকে একটি ভুল নির্দেশনার জন্য ভয়েজার-২ তার গতিপথ পরিবর্তন করে ফেলে। কিন্তু মঙ্গলবার এক আগস্ট মহাকাশযানটি থেকে একটি শক্তিশালী সংকেত পাওয়া যায়।যা থেকে বোঝা যায় এটি আবার পৃথিবীতে ফেরত আসছে।

পৃথিবী থেকে কয়েক বিলিয়ন কিমি দূরে থাকা ভয়েজার-২-এর কমান্ড কাজ করছে কি না তা জানতেই নিয়ন্ত্রকদের ৩৭ ঘণ্টার মতো সময় লেগে গিয়েছিল।

ভয়েজারের প্রকল্প ম্যানেজার সুজান ডড সংবাদ সংস্থা এএফপি-কে বলেন, তারা সর্বোচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ট্রান্সমিটার ব্যবহার করেছেন মহাকাশযানে বার্তা দেওয়ার জন্য। ভয়েজার-২ যখন সংযোগ হারিয়ে ফেলে তখন থেকেই এটি নাসা থেকে বার্তা গ্রহণ এবং নাসায় বার্তা পাঠাতে ব্যর্থ ছিল।বিশেষজ্ঞরা আশা রাখছেন, ভয়েজার-২ তার পরিকল্পিত গতিপথেই চলাচল করবে।

মহাকাশযানটি থেকে প্রথমে হৃৎস্পন্দনের মতো হালকা সংকেত পাওয়া গিয়েছিল। পরে সোমবার (৩১ জুলাই) অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরা থেকে নাসা সংকেত শনাক্তের চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। নাসা তাদের অ্যান্টেনার সাহায্যে ভয়েজার-২-এ ক্রমাগত বার্তা পাঠাচ্ছিল।

প্রত্যেক বছর ভয়েজার-২-এর অ্যান্টেনা পৃথিবীর দিকে রেখেই এর গতিপথ পরিবর্তন করে দেওয়া হয়। আগামী ১৫ অক্টোবর নতুন গতিপথ তৈরি করার কথা।  হেলিওস্ফেয়ার বা সূর্যমণ্ডলের বাইরে পরিচালিত হওয়া মহাকাশযান হলো ভয়েজার-১ ও ভয়েজার-২। এ দুইটি যান ২০১২ ও ২০১৮ সালে সৌরজগতের বাইরে যেতে সক্ষম হয়েছিল।বৃহস্পতি ও শনি গ্রহ অন্বেষণের জন্য মহাকাশযান দুইটিকে বানানো হয়েছিল।১৭৬ বছর পরপর গ্রহ দুইটিতে বিরল প্রকৃতির সরলরেখা দেখা যায়। 

ভয়েজার-২ নেপচুন ও ইউরেনাস গ্রহ পর্যন্ত যেতে পেরেছিল। অন্যদিকে ভয়েজার-১ পৃথিবী থেকে ১৫ বিলিয়ন দূরে অবস্থান করেছে। যা এটিকে মানবজাতি থেকে সবচেয়ে দূরবর্তী মহাকাশযানে পরিণত করেছে। ২০২৫ সালের পর দুইটি মহাকাশযানেরই শক্তি শেষ হয়ে যাবে। তখন এগুলো মহাকাশে ঘুরে বেড়াবে। 

Walton Refrigerator Freezer
Walton Refrigerator Freezer