Bahumatrik Multidimensional news service in Bangla & English
 
৯ বৈশাখ ১৪২৫, সোমবার ২৩ এপ্রিল ২০১৮, ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ
Globe-Uro

এলডিসির বিকল্প হতে পারে বিমস্টেক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী


২০ মার্চ ২০১৮ মঙ্গলবার, ১১:৫২  পিএম

বহুমাত্রিক ডেস্ক


এলডিসির বিকল্প হতে পারে বিমস্টেক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা : পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী আজ বলেছেন, বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের কাতার থেকে বেরিয়ে আসার পর যেসব সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে তা মোকাবেলায় বিমস্টেক এলডিসি গ্রুপের বিকল্প হতে পারে।

তিনি বলেন, ‘আমরা যে উন্নয়ন ও অগ্রগতি অর্জন করেছি, তা ধরে রাখতে আমরা তাৎক্ষণিক কিছু কিছু বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সমস্যার সম্মুখীন হতে পারি। আমাদের এলডিসি ফোরামের বিকল্প খুঁজে বের করতে হতে পারে। বিমস্টেক ফোরাম এমন একটি বিকল্প হতে পারে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাজধানীতে মঙ্গলবার বিমসটেকের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিমসটেক সচিবালয়ে দিনব্যাপী এক সেমিনারে প্রধান অথিতির বক্তব্য রাখছিলেন।

বিমসটেক মহাসচিব এম. শহদিুল ইসলামও সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। বিমসটেক দেশগুলোর প্রতিনিধি, নীতিনির্ধারক, পররাষ্ট্রনীতি বিশেষজ্ঞ, শিক্ষাবিদ, ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ও সুশীল সমাজের সদস্যরা সেমিনারে প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এবং বিমস্টেকের তিন সদস্য ভুটান, নেপাল ও মিয়ানমার স্বল্পোন্নত গ্রুপ থেকে বেরিয়ে মধ্য আয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার প্রক্রিয়ায় রয়েছে, যা আমাদের জন্য বিশাল গৌরবের বিষয়।

তিনি বলেন, ‘এলডিসি সদস্য হিসেবে আমরা যেসব অর্থনৈতিক সুফল পেতাম বিমসটেক প্রক্রিয়ার অধীনে দ্রুত অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদার করার মাধ্যমে আমরা সেগুলো পুষিয়ে নিতে পারি।’
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বিমসটেক ফোরামে আমাদের সহযাগিতা থেকে দ্রুত সুফল তুলে নিতে ঝুলে থাকা সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করা এখন সব সদস্যের জন্য জরুরি।’

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বিমসটেক প্রক্রিয়াকে ‘ফলপ্রসূ সংগঠন’ হিসেবে গড়ে তুলতে একে আরো গতিশীল, কার্যকর এবং এর প্রাতিষ্ঠানিক প্রক্রিয়া জোরদার করতে জোরালো অগ্রাধিকার দিচ্ছে। তিনি বলেন, ২০১৪ থেকে ঢাকায় বিমসটেক সচিবালয় এই ফোরামের প্রতি আমাদের অঙ্গীকারের অন্যতম প্রমাণ।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিমসটেক ২০টি বছর পেছনে ফেলে এসেছে। এই সুদীর্ঘ যাত্রায় অর্থনীতি এবং সামাজিক ও কারিগরি ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে। কিন্তু এই ফোরামকে একটি কার্যকর ফোরামে পরিণত করতে হলে আরো অনেক কিছু করার আছে। তিনি বলেন, এ অঞ্চলের জনগণের অর্থনৈতিক ও সামাজিক অগ্রগতি জোরদার করার বিপুল সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও এ ফোরামটি সে অর্থে এখনো পুরোপুরি কার্যকর হয়ে উঠেনি।

অব্যবহৃত সম্ভাবনাগুলো কাজে লাগাতে বঙ্গোপসাগর উপকূলের সাত দেশের এই জোটকে ‘ফলপ্রসূ সংগঠন’ হিসেবে গড়ে তোলার ওপর জোর দিয়ে মাহমুদ আলী বলেন, বিমস্টেকভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে সহযোগিতা বাড়াতে বাংলাদেশ নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।

১৯৯৭ সালে বে অফ বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টি সেক্টোরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক কো-অপারেশন (বিমস্টেক) গঠিত হয়। ব্যাংকক ঘোষণার মধ্যদিয়ে বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা ও থাইল্যান্ড এই উদ্যোগ শুরু করে; পরে মিয়ানমার, নেপাল ও ভুটান এতে যোগ দেয়।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
Bay Leaf Premium Tea
Intlestore

আন্তঃদেশীয় সম্পর্ক -এর সর্বশেষ

Hairtrade