Bahumatrik | বহুমাত্রিক

সরকার নিবন্ধিত বিশেষায়িত অনলাইন গণমাধ্যম

ফাল্গুন ১২ ১৪৩০, রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

মণিপুরে সহিংসতা

শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশে মণিপুরি সম্প্রদায়ের সমাবেশ

নূরুল মোহাইমীন মিল্টন, নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:১৩, ৯ জুন ২০২৩

প্রিন্ট:

শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশে মণিপুরি সম্প্রদায়ের সমাবেশ

ছবি: বহুমাত্রিক.কম

গত ৩ মে থেকে ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য মণিপুরে চলা সহিংসতায় শান্তি প্রতিষ্ঠার দাবিতে বাংলাদেশের মনিপুরিরা শান্তি সমাবেশ করেছেন। শুক্রবার (৯ জুন) দুপুরে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের মনিপুরি কালচারাল কমপ্লেক্সের হলরুমে এ সমাবেশের অনুষ্ঠিত হয়। 

মণিপুরী নেতা এল ইবুংহাল শ্যামল সভাপতিত্বে ও অয়েকমপ অঞ্জুর সঞ্চালনায় সমাবেশে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ মণিপুরি সাহিত্য সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কবি এ.কে শেরাম, কমলগঞ্জ শাখার সভাপতি মাইবাম বীরেন্দ্র, মণিপুরি কালচারাল কমপ্লেক্সের সভাপতি এল জয়ন্ত, শিক্ষিকা বৃন্দারানী সিনহা, থোঙাম প্রহল্লাদ, এল প্রসেনজিৎ, সোরাইজাম উৎপল, অশোক অঙোম, হাওবম সুধীর, থাংজম সুখ প্রমুখ।

সমাবেশের শুরুতেই মণিপুর রাজ্যে নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে মণিপুরে দাঙ্গা-হাঙ্গামা ও অশান্তির অবসান ঘটিয়ে পূর্ণ শান্তি ও পূর্বের মতো দ্রুত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির পরিবেশ প্রতিষ্ঠার জন্য জোর দাবি জানানো হয়।

বক্তারা বলেন, ভারতের মণিপুর রাজ্যে কুকি জনগোষ্ঠীর লোকেরা অতর্কিতে সেখানের মণিপুরি জনগোষ্ঠীর ওপর আক্রমণ করে তাদের ঘরবাড়ি জ্বালানোসহ জানমালের ক্ষতি করে চলেছেন। মণিপুরিরাও একইভাবে প্রতি-আক্রমণ করে। ফলে এই দুই জনগোষ্ঠীর মধ্যে জাতিগত দাঙ্গা শুরু হয়। মণিপুরে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য ভারত সরকার প্যারা-মিলিটারি বাহিনী আসাম রাইফেলসসহ কেন্দ্রীয় মিলিটারি বাহিনীও নিয়োগ করে। তারপরও পরিস্থিতি পুরো নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এখনও বিভিন্ন স্থানে দাঙ্গা পরিস্থিতি বিরাজ করছে এবং জানমালের ক্ষতি হচ্ছে। মণিপুরে সহিংসতার এ পরিস্থিতিতে যাতে সেখানে পুরোপুরি শান্তি প্রতিষ্ঠিত হয় সেজন্যে আমরা বাংলাদেশের মণিপুরীদের উদ্যোগে সর্বজনীন শান্তি সমাবেশ করছি।

Walton Refrigerator Freezer
Walton Refrigerator Freezer