Bahumatrik | বহুমাত্রিক

সরকার নিবন্ধিত বিশেষায়িত অনলাইন গণমাধ্যম

আষাঢ় ৪ ১৪৩১, বুধবার ১৯ জুন ২০২৪

উড়ানের বসন্ত উৎসব যেন ‘এক টুকরো শান্তিনিকেতন’

বিশেষ প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:১৫, ১৩ মার্চ ২০২৩

প্রিন্ট:

উড়ানের বসন্ত উৎসব যেন ‘এক টুকরো শান্তিনিকেতন’

ছবি- সংগৃহীত

বসন্তে বাংলার প্রকৃতিতে শিমুল-পলাশের বনে যে ফুলেল বাণ ছুটে, নতুন পত্র-পল্লবের ফাঁক গলিয়ে কোকিলের কুহু তানে বাঙালির মনে যে আনন্দের হিন্দোল জাগে তা পরিণতি পায় অজস্র উৎসবে। উৎসবপ্রিয় বাঙালির এই প্রবৃত্তি বোধহয় বসন্তে সবকিছুকেই ছাপিয়ে যায়। কালের গণ্ডি পেরিয়ে ‘বসন্তের মাতাল সমীরণে’ তাই তো চারদিকে উৎসবে উৎসবে ভরিয়ে তুলে। 

পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগর এমনি এক শহর। বহুকাল থেকে এখানকার উৎসব পরম্পরা বাঙালির সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে দিয়েছে এক অনন্য মাত্রা। কবি নজরুলের স্মৃতিধন্য এই কৃষ্ণনগর এবারের বসন্তেও মেতেছিল এক বর্ণিল উৎসবে। লোকজ ঐতিহ্যের সম্বৃদ্ধ উত্তরাধিকার মেলে ধরে কৃষ্ণনগর শহরের প্রাণকেন্দ্র পাবলিক লাইব্রেরি চত্বরে আয়োজন করা হয় এবারের বসন্ত উৎসব।  

গেল ৮ মার্চ শুরু হওয়া এই উৎসবের সমাপনী দিন ছিল আজ ১২ মার্চ রোববার। কৃষ্ণনগরের ঐতিহ্যিক পরম্পরাকে লালন করা প্রতিষ্ঠান ‘উড়ান’ প্রতি বছরের মতো এবারও তাদের বর্ণিল আয়োজন গোটা শহরকে মাতিয়ে তুলে। তাদের এই মহাআয়োজন যুক্ত করেছিল বাংলাদেশকেও। নাচ-গান, কবিতা, লোকসংস্কৃতির নানা উপাদানের প্রদর্শন আর গুণীজন কথামালায় এবারের বসন্ত উৎসব এক অন্য মাত্রায় পৌছে গিয়েছে। 

প্রখ্যাত বাউল শিল্পী গোলাম ফকির থেকে শুরু করে ভারতের বড় বড় মঞ্চ কাঁপানো শিল্পী অনন্যা চক্রবর্তী, বাংলার অন্যতম গায়ক শিলাজিৎ মজুমদার আর বাংলাদেশের অন্যতম ব্যান্ড ‘বাংলা ফাইভ’ এবারের উৎসবকে মাতিয়েছে। কৃষ্ণনগর পাবলিক লাইব্রেরির মাঠে এই অনুষ্ঠান যেন হয়ে উঠেছিল ‘এক টুকরো শান্তিনিকেতন’ ।

৮ মার্চ (২০২৩) ‘কৃষ্ণনগর বসন্ত উৎসব’ এর উদ্বোধনী আয়োজনের দিনে আন্তর্জাতিক নারী দিবসে ‘এক্সট্রা অর্ডিনারি’ নারীদের সম্মাননা প্রদান উৎসবকে পূর্ণতায় ভরিয়ে তুলে। আয়োজনে যোগ দিয়ে বাংলা ও বাঙালির চিরায়ত সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিতে উড়ানের প্রচেষ্টাকে সমর্থন জানান অতিথিরা। এই আয়োজনের ধারাবাহিকতা ও ব্যাপকতা বৃদ্ধির তাগিদও আসে অতিথিদের বক্তব্যে। উদ্বোধনী দিন সন্ধ্যায় ওই আয়োজনে ৮ জন নারীকে সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়।

তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন বিখ্যাত পটচিত্র শিল্পী রেবা পাল, অগ্নি নির্বাপন কর্মী তানিয়া স্যার্নাল, সাংবাদিক প্রিয়া ছন্দা, সঙ্গীত শিল্পী টিনা ঘোষাল। অনুষ্ঠানে কৃষ্ণনগর পৌরসভার চেয়ারম্যান রিতা দাস, ইতিহাস গবেষক ও বহুমাত্রিক.কম এর প্রধান সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, প্রযুক্তিবিদ ও বাংলাউৎসবের সংগঠক প্রিভেল পাল টিটুসহ অন্যরা বক্তব্য দেন।  

উড়ানের কর্ণধার অনুপ বিশ্বাস আয়োজন সম্পর্কে বলেন, ‘বিগত দুই বছরে কোভিডের কারণে দুই বাংলার বসন্ত উৎসব হয়ে ওঠে নি, তবে এবারে আমরা কৃষ্ণনগর বসন্ত উৎসব শুধুই এক টুকরো শান্তিনিকেতন এর ছোঁয়াই দেয়নি না, গানে-সুরে দুই বাংলার আবহ তুলে ধরেছে সমস্ত মানুষের কাছে। আমরা সবাইকে পাশে পেলে এই আয়োজন অব্যাহত রাখব। বাংলা ও বাঙালির পরম্পরাকে বাঁচিয়ে রাখতে সচেষ্ট হব।’ 

Walton Refrigerator Freezer
Walton Refrigerator Freezer