Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, শনিবার ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ৩:৩৪ পূর্বাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

ভালুকায় উদ্ধারকৃত বনভূমি ফের জবরদখল


১০ জুলাই ২০১৯ বুধবার, ০১:৪৬  এএম

মোঃ মজনু মিয়া, ভালুকা প্রতিনিধি

বহুমাত্রিক.কম


ভালুকায় উদ্ধারকৃত বনভূমি ফের জবরদখল

ময়মনসিংহ: ভালুকার ধামশুর মৌজার বিরামনগর গ্রামে সাবেক ১১০৮ দাগে বনবিভাগ কর্তৃক উদ্ধার হওয়া বনের জমিতে মঙ্গলবার সকালে হেলাল শিকদার নামে এক ব্যক্তি টং ঘর উঠিয়ে পুনরায় জবরদখল করার অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনার পর পর ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ও বন বিভাগের লোকজন উপস্থিত হয়ে টং ঘরটি সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেন। জানা যায় বেশ কিছুদিন পূর্বে বিরাম নগর গ্রামের জসীম উদ্দীন পাঠান গংদের দাবিকৃত বন বিজ্ঞপ্তিতে ওই জমিতে হেলাল শিকদার গংরা সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে জমি জবর দখল করে। পরবর্তীতে বন বিভাগ ওই সীমানা প্রাচীর গুড়িয়ে দিয়ে বনের জমি জবর দখলমুক্ত করে হেলাল গংদের বিরুদ্ধে বন আইনে মামলা দায়ের করেন।

মঙ্গলবার ওই জমিতে হেলাল শিকদার লোকজন নিয়ে টং ঘর উঠিয়ে পুনরায় জবরদখল করে। খবর পেয়ে হাজির বাজার ক্যাম্পের বন প্রহরী সাইদুল ইসলাম অপর বন প্রহরীদের নিয়ে ঘটনা স্থলে এসে বাধা প্রধান করলেও হেলাল গংরা টংঘরটি সরিয়ে নেননি। এ সময় বন প্রহরীদের সাথে হেলাল ও তার লোকজনের কথা কাটাকাটি হয়। টংঘরটি ওই অবস্থায় রেখে বনের লোকজন চলে যায়।

এ ব্যাপারে হেলাল শিকদার জানান, তারা ১৯৮১ সালে ভূমিহীন মুলে ওই জমির বৈধ মালিকানা পেয়েছেন। তারা তাদের জমিতে টংঘর তুলেছেন। হাজির বাজার বন ক্যাম্প ইনচার্জ কামরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি তিনি অবগত হয়েছেন এ ব্যাপারে বন আইনে ব্যবস্থা নিবেন।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।