Bahumatrik Multidimensional news service in Bangla & English
 
৮ কার্তিক ১৪২৪, সোমবার ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ১০:৫০ অপরাহ্ণ
Globe-Uro

নতুন জীবনে ফিরেছে মিনারভা


২৮ মার্চ ২০১৪ শুক্রবার, ০৭:১৫  এএম

রিফাত সালাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুমাত্রিক.কম


নতুন জীবনে ফিরেছে মিনারভা

ঢাকা: দীর্ঘ ৭ মাস অসহ্য কষ্টের পথ পাড়ি দিয়ে মিনারভা (মানবিক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া জনৈক নারীর দেওয়া নাম এটি, যে তাকে নতুন জীবনে ফিরিয়ে দিয়েছে) এখন একটি নিরাপদ আবাস খুঁজে পেয়েছে।

মুখ ফুটে নিজের কথা জানাতে না পারলেও তার চোখে-মুখে আনন্দের রেখা। তাতে সে যেন জানান দেওয়ার চেষ্টা করছে, আমি পেছনের দিনে ফিরে যেতে চাই না-ভালো ভাবে বাঁচতে চাই, মানুষের মতো করে।  

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের উপ-পরিচালক মুশফিকুর রহিমের তথ্যমতে প্রায় ৭ মাস পূর্বে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে ৭ বছরের শারীরিক ও মানসিক ভাবে প্রতিবন্ধী এই মেয়েটি পাওয়া যায়। কে বা কারা তাকে সেখানে রেখে যায় তার কোন হদিস পাওয়া যায়নি ।

তখন থেকে ”আন্নু” নামেই হাসপাতালের ২০৭ নম্বর শিশু ওয়ার্ডের ১৩ নম্বর বেডে ঠাঁই হয় মেয়েটি। সেখানকার নোংরা পরিবেশ আর যত্নের অভাবে মানবেতর ভাবে দিন কাটতে থাকে আন্নুর। আশপাশের রোগীরা গণমাধ্যমকর্মীদের জানায়, ১৫ দিনে মাত্র একবার গোসল করানো  হতো তাকে। ঠিক সময়ে পেতো না তিন বেলার খাবারও।

হাসপাতালের আয়া ফুলবানুর তত্ত্বাবধানে রাখা হলেও মেয়েটির ঠিক মতো দেখভাল করতেন না তিনিও।
২০ মার্চ ইংরেজি দৈনিক ঢাকা ট্রিবিউন মানবিক আবেদনময় এ ঘটনা নিয়ে বিশেষ সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এর ফলে কর্তৃপক্ষ কিছুটা নড়েচড়ে বসেন। সেবাযত্নেরও খানিকটা উন্নতি হয়।

কিন্তু আমাদের সরকারি হাসপাতালের দীর্ঘদিনের পরিসেবার যে রীতি বোধহয় তা থেকে বেরুনোটা রীতিমতো কঠিন! বিষয়টি পত্রিকাটির সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদককে প্রবল ভাবে আলোড়িত করে। তাড়না অনুভব করেন- কেবল প্রতিবেদন প্রকাশই যথেষ্ট নয়। ওর পাশে দাঁড়ানোটাও জরুরি। এমন অনুভূতি থেকে ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাবার, কাপড় ও ডায়পারসহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য সামগ্রীর ব্যবস্থা করেন। নিশ্চিত করেন সেগুলো যাতে ঠিক মতো কাজে লাগে মেয়েটির।

সংশ্লিষ্ট ওই প্রতিবেদক যোগাযোগ করেন বিভিন্ন দাতব্য সংস্থার সাথে। কী ভাবে মেয়েটিকে পুনর্বাসিত করা যায়।। সেন্টারফর রিহেবিলিটেশন অব দ্য প্যারালাইসড (সিআরপি) এ আহ্বানে সাড়া দেয়। ২৩ মার্চ ‘‘মিনারভা’’ কে হস্তান্তর করা হয় সিআরপি’র কাছে। যেখানে সে নিয়মিত চিকিৎসা ও বিশেষ শিক্ষা পাবে। তার নিরাপদ জীবনের কামনা করে নতুন নাম রাখা হয় সৈয়দা মিনারভা সালাম।

(পাঠক, সহৃদয় ওই সংবাদিকের অনুরোধেই তার নামটি এখানে উল্লেখ করা হয়নি। তিনি স্বামী বিবেকানন্দের উদ্বৃতি তুলে ধরেন, ‘‘দাও আর ফিরে নাহি চাও/থাকে যদি হৃদয়ের সম্বল’’। আমরা তার এ অভিপ্রায়কে সম্মান জানাতে চাই।)

বাংলাদেশ সময়: ০১০ ঘণ্টা, মার্চ ২৭, ২০১৪

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
Bay Leaf Premium Tea
Intlestore

বেঁচে থাকার গল্প -এর সর্বশেষ

Hairtrade