Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
২ শ্রাবণ ১৪২৬, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ৫:৩৭ অপরাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

কুমারখালীতে ভ্রাম্যমাণ বাসে বসে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ


০১ জুন ২০১৬ বুধবার, ১০:৪৩  পিএম

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

বহুমাত্রিক.কম


কুমারখালীতে ভ্রাম্যমাণ বাসে বসে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ

কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে গ্রামে বসে লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের টাকা উপার্জনের পথ বের করে দেয়ার জন্য ভ্রাম্যমান কম্পিউটার প্রশিক্ষণ বাস নিয়ে আসা হয়েছে।

বুধবার কুমারখালী উপজেলা হলরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মুরশেদ আলম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) তানজিলুর রহমান।

৪০ জন শিক্ষার্থী একমাসব্যাপি উপজেলা প্রাঙ্গণে তিন শিফটে কম্পিউটারের বেসিক ধারণা বাসে বসে গ্রহণ করবে। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর কর্তৃক একমাস মেয়াদী ভ্রাম্যমান বাসে বেসিক কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্সে উপজেলার সবক’টি ইউনিয়ন থেকে ২০ জন মেয়ে ও ২০ জন ছেলেসহ মোট ৪০ জন অংশ নিয়েছে। তারা সবাই বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত। খুলনা বিভাগে কয়রা উপজেলার পর এই কুমারখালীতে এ ধরনের প্রশিক্ষণ এ জেলায় প্রথম।

উদ্বোধনকালে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মুরশেদ আলম বলেন, আমাদের দেশের জনসংখ্যা উলে¬খযোগ্য থাকলেও সে হারে দক্ষ জনশক্তি বাড়ছে না। তাই জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে নানা ধরনের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে। এসব প্রশিক্ষণ পেয়ে যে কেউ নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে।

তিনি বলেন, কম্পিউটার প্রশিক্ষণের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীরা লেখাপড়ার সাথে ঘরে বসে বৈধ পন্থায় অর্থ উপার্জন করতে পারবে।

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল হালিম বলেন, এখান থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে শিক্ষার্থী ঘরে বসে আয় করে নিজের খচর চালাতে পারবে। এতে করে তাদের লেখাপড়ার কোনো সমস্যা হবে না। বরং তারা নিজের টাকা দিয়ে লেখাপড়া চালিয়ে যেতে পারবে। শিক্ষার্থীরা বলেন- আমরা স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি এ ধরনের প্রশিক্ষণে অংশ নিতে পারব। আমরা এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে গ্রামে বসে বৈধ পথে আয় করে নিজেদের পায়ে দাঁড়াতে চাই।

তারা বলেন, শুধু শুনতাম ডিজিটাল। আজ আমরা বাস্তবে দেখতে পারছি এবং কাজ করছি। বাসে বসে লোকজন চলাচল করে। তথ্যপ্রযুক্তি শেখা বাসে বসে সত্যি আনন্দের শেষ হচ্ছে না। আজ সবাই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এ প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজের মেধা কাজে লাগিয়ে আমরা কুমারখালীকে সত্যিকারের ডিজিটাল উপজেলা হিসেবে রূপ দেব।

কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) তানজিলুর রহমান বলেন, দক্ষ ফ্রিল্যান্সার তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে ‘ক্যারাভ্যানে’র মাধ্যমে কুমারখালীর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ৪০ জন তরুণ-তরুণীদের প্রযুক্তির জ্ঞান দেয়া হবে। ছোট আকৃতির এই প্রযুক্তির বাসে বেশ কয়েকটি কম্পিউটার থাকবে। দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষদের অনলাইন দুনিয়ার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়া হবে। পহেলা জুন থেকে শুরু হওয়া এই প্রশিক্ষণ ৩১ জুন পর্যন্ত চলবে।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Netaji Subhash Chandra Bose
BRTA
Bay Leaf Premium Tea

প্রযুক্তির সাথে -এর সর্বশেষ