Bahumatrik | বহুমাত্রিক

সরকার নিবন্ধিত বিশেষায়িত অনলাইন গণমাধ্যম

বৈশাখ ৮ ১৪৩১, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪

রেলের কৃষি বন্দোবস্ত ভূমিতে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও বসতঘর

নূরুল মোহাইমীন মিল্টন, নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২১:০৩, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩

আপডেট: ১৭:১৩, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

প্রিন্ট:

রেলের কৃষি বন্দোবস্ত ভূমিতে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ও বসতঘর

ছবি: বহুমাত্রিক.কম

রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলের সিলেট-আখাউড়া রেল সেকশনের বিভিন্ন স্টেশন এলাকায় হাজার হাজার কোটি টাকার মূল্যবান ভূ-সম্পত্তি কৃষি বন্দোবস্ত নিয়ে অবৈধভাবে বাণিজ্য করছেন। সেকশনের শমশেরনগর, ভানুগাছসহ বিভিন্ন স্টেশনের কোয়ার্টার গুলোতে অবৈধভাবে ভাড়া ও প্লট বিক্রি করা হচ্ছে।

স্থানীয় প্রভাবশালী ও সংশ্লিষ্টদের যোগসাজষে রেলের দু’পার্শ্বে এসব ভূমিতে দেদারসে বাসাবাড়ি ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে। ফলে রেলওয়ে ষ্টেশন সংলগ্নসহ এলাকায় কোটি কোটি টাকার কৃষিজমি ও ভূ-সম্পত্তি বেহাত হচ্ছে। স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল মূল্যবান এসব জমি প্রকাশ্য দখলে নিয়ে প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করে চললেও সম্পত্তি রক্ষায় কর্তৃপক্ষের কোন নজর নেই।

সরেজমিনে দেখা যায়, শমশেরনগর রেলস্টেশন এলাকায় কয়েকটি কোয়ার্টার জীর্নশীর্ণ দশা ধারণ করেছে। কোয়ার্টারগুলো বহিরাগতদের ভাড়া দিয়ে বাণিজ্য করছেন রেলওয়ের অবসরপ্রাপ্ত কতিপয় কর্মচারী। একইভাবে রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার যোগসাজষে কোয়ার্টার সংলগ্ন ভূমি প্লট আকারে লক্ষাধিক টাকায় বিক্রি করছেন। এক সময়ে রেলওয়ের পরিত্যক্ত এসব ভূমিতে নতুন নতুন প্রতিষ্টান ও বসতঘর তৈরি করা হচ্ছে। এতে হাজার হাজার টাকা বাণিজ্য করছেন রেলওয়ের কতিপয় কর্মকর্তা কর্মচারী ও স্থানীয় প্রভাবশালীরা। কৃষি বন্দোবস্ত নেয়া ভূমিতেও পাকা দালান নির্মাণের প্রতিযোগিতা চলছে। এতে সরকার হারাচ্ছে কোটি কোটি টাকার রাজস্ব।

প্রভাবশালী মহল কর্তৃক রেলওয়ের কৃষি বন্দোবস্ত নেওয়া জমিজমার সাথে পরিত্যক্ত জমি নিজেদের দখলে নিয়ে চড়া দামে ক্রয় বিক্রয় চলছে। কৃষি বন্দোবস্তকৃত স্থানীয় প্রভাবশালী লোকেরা টিনসেড, পাকা ও আধাপাকা ঘর নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছেন লাখ লাখ টাকা। এসব ঘরে নিম্ম আয়ের লোকজন ভাড়া নিয়ে স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। রেলপথের পাশে এসব জমিতে গড়ে উঠা কিছু কলোনী সমূহে লোহা চুরি ও মাদক ব্যবসার আস্তানাও গড়ে উঠছে। শমশেরনগর রেলস্টেশনের দক্ষিণ পাশের ৩৭০ নম্বর খুঁটির পশ্চিম পাশে লিজকৃত কৃষিভূমিটুকুও জনৈক ব্যক্তি দখলে নিয়ে অবৈধ ঘর তৈরি করে বসবাস করারও অভিযোগ রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, রেলওয়ের ভূ-সম্পত্তি থেকে সরকারের বিপুল পরিমাণে রাজস্ব আয়ের অফুরন্ত সুযোগ রয়েছে। তবে অবৈধভাবে জমি বেহাত হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ রেলওয়ে সেই সুযোগ থেকে হাতছাড়া হচ্ছে। ওই জোনের টিলাগাঁও, লংলা, ভাটেরা, কুলাউড়া, শমশেরনগর, ভানুগাছ, শ্রীমঙ্গল, সাতগাও, রশিদপুর, লস্করপুর, শায়েস্তাগঞ্জ ও নোয়াপাড়াসহ বিভিন্ন ষ্টেশনের পাশের জমি অবৈধ দখলে নিয়ে ঘরবাড়ি ও দোকানপাট নির্মিত হচ্ছে।

শমশেরনগর রেলওয়ে ষ্টেশন মাষ্টার জামাল হোসেন জানান, কৃষি বন্দোবস্ত নিয়ে এভাবে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে বাসাবাড়ি ও দোকান গৃহ গড়ে উঠছে। রেলওয়ের অবসরপ্রাপ্ত এক কর্মচারী এখানে অবস্থান করে একটি সিন্ডিকেট তৈরি করে অবৈধভাবে কোয়ার্টার এলাকায় প্লট বিক্রি ও ভাড়া দিয়ে বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন।

এব্যাপারে রেলওয়ের কুলাউড়াস্থ উর্দ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী (পূর্ত) মো. জুয়েল হোসাইন বলেন, রেলের কোয়ার্টার ভাড়া ও জমি দখল, বিক্রির করে নেয়ার বিষয়ে বিভাগীয় পর্যায়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে রেলওয়ের ভূ-সম্পত্তি বিভাগের চট্রগ্রামস্থ প্রধান ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা (পূর্ব) সুজন চৌধরী বলেন, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

বহুমাত্রিক.কম

Walton Refrigerator Freezer
Walton Refrigerator Freezer