Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
৯ আষাঢ় ১৪২৮, বুধবার ২৩ জুন ২০২১, ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

আনিতার ‘নেতাজীকন্যা’ স্বীকৃতি প্রত্যাহার চেয়ে হ্যাশট্যাগ কর্মসূচি


০৩ জুন ২০২১ বৃহস্পতিবার, ০১:৪৫  এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুমাত্রিক.কম


আনিতার ‘নেতাজীকন্যা’ স্বীকৃতি প্রত্যাহার চেয়ে হ্যাশট্যাগ কর্মসূচি

পরাধীন ভারতবর্ষের স্বাধীনতার মহানায়ক নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মের ১২৫ বর্ষে পদার্পণ মহাসমারোহে উদযাপনে ভারত সরকার গঠিত ‘হাইলেভেল কমিটি’তে জনৈকা বিদেশিনীর নাম অন্তর্ভূক্তি নিয়ে বিতর্ক দাঁনা বেধেছে। চলতি বছরের জানুয়ারিতে নেতাজীর জন্মোৎসব উদযাপনে ৮৫ সদস্যের হাইলেভেল কমিটি গঠন করে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার, যার নেতৃত্বে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।  

‘আনিতা’ নামের ওই বিদেশিনীকে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন ওই কমিটিতে ‘নেতাজী কন্যা’ হিসেবে স্বীকৃতি দানের প্রতিবাদে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব হয়েছেন দেশে ও বিদেশের অগণিত নেতাজী অনুরাগীরা। 

#deleteanitasnamefrompmnetajicommitee হ্যাশট্যাগ কর্মসূচিতে শামিল হলে ভারত সরকারের কাছে অনতিবিলম্বে কথিত ‘নেতাজী কন্যা’ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া ওই বিদেশিনীর নাম প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই কর্মসূচিতে একাত্ম হয়ে নেতাজী গবেষকরা দাবি করেছেন, ‘‘কোনো রকম নির্ভরযোগ্য তথ্য জাতির সামনে উপস্থাপন না করেই দীর্ঘদিনের দেশি-বিদেশি চক্রান্তের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে এই ‘অপচেষ্টা’কে মান্যতা দিয়ে সরকার নেতাজীর প্রতি অপরাপর সরকারগুলোর মতোই চরম অশ্রদ্ধা দেখালো।’’    

নেতাজী বিশেষজ্ঞ ড. জয়ন্ত চৌধুরী এবিষয়ে বহুমাত্রিক.কম-কে বলেছেন, ‘‘নেতাজীর নিষ্কলুষ চরিত্রে কালিমালেপনে নেহেরুযুগে ঘৃণ্য চেষ্টা হয়েছিল প্রকৃতঅর্থে স্বাধীনতা সংগ্রামে ব্রিটিশের পদলেহনকারীদের ‘‘জাতীয় বীর’ হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে। কারণ নেতাজীকে বিবাহিত প্রমাণ করা গেলেই তথাকথিত স্ত্রী-কন্যাদের মুখ থেকে চাপিয়ে দেওয়া মিথ্যা ইতিহাস জাতিকে শোনানো যাবে। এবং সম্পূর্ণ বৈষয়িক সুবিধা পেতে দাবিদার পরিবারের কোনো কোনো সদস্য এই কুচক্রীদের চক্রান্তে শামিল হয়েছিলেন।’’

‘‘তথাকথিত ‘নেতাজী কন্যা আনিতা’ সেই চক্রান্তেরই সবশেষ সংস্করণ। ভারতের প্রকৃত মুক্তিদাতাকে নিয়ে এই হীন চেষ্টার অন্যতম আরেক কারণ তাকে ‘মৃত’ প্রমাণ করার দাবিকে সুপ্রতিষ্ঠিত করা। আমিসহ বহু সত্যান্বেষী গবেষকের প্রচেষ্টায় আজ সব সত্যই উন্মোচিত। তা সত্ত্বেও নেতাজীর ১২৫ জন্ম বর্ষের ‘হাইলেভেল কমিটি’তে এই জনৈক বিদেশিনীর ‘নেতাজী কন্যা’ হিসেবে স্বীকৃতি এটাই প্রমাণ করে যে, বহু যুগ ধরে চলা সেই চক্রান্ত আজও সক্রিয়’’-যোগ করেন ড. চৌধুরী। 

বাংলাদেশের নেতাজীপ্রেমীদের সংগঠন ‘ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর নেতাজী সুভাষ আইডিওলজি (আইসিএনএসআই) চলমান এই হ্যাশট্যাগ কর্মসূচিতে একাত্মতা জানিয়ে সংগঠনের ফেসবুক পেজে লিখেছে, ‘বাংলাদেশের নেতাজীপ্রেমীদের আন্তরিক সংহতি। নেতাজীর সত্যনিষ্ট ইতিহাসের চর্চায় বড় অন্তরায় তথাকথিত এই এনিটা। সংশ্লিষ্টদের বোধোদয় হোক’

অমর্ত্য দে নামের একজন নেতাজীপ্রেমী লিখেছেন, ‘I urge the honourable PM of India to do this and prove that he indeed is a mazboot PM’

কর্মসূচিতে একাত্মতা জানিয়ে রত্না চৌধুরী লিখেছেন, ‘স্ফটিকের মতো স্বচ্ছ  আজ সত্যটা’। কৌশিক চট্টোপাধ্যায় লিখেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নেতাজি কমিটি থেকে অবিলম্বে অনিতার নাম সরাতে হবে। চারিদিকে এই দাবি উঠুক!’

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
Bay Leaf Premium Tea

বিশেষ প্রতিবেদন -এর সর্বশেষ