Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
২ শ্রাবণ ১৪২৬, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ৩:১৮ অপরাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

ঘুষ নিয়েও সংযোগ না দেয়ায় অবরুদ্ধ পিডিবির ইঞ্জিনিয়ার


০৯ মে ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১২:৩৯  এএম

কাজী রকিবুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুমাত্রিক.কম


ঘুষ নিয়েও সংযোগ না দেয়ায় অবরুদ্ধ পিডিবির ইঞ্জিনিয়ার

যশোর: যশোরে টাকা নিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ না দেয়ায় পিডিবির তিন ইঞ্জিনিয়ার ও একজন লাইনম্যানকে অবরুদ্ধ করে রাখার পর মুচলিকে নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে। এ ঘটনায় পিডিবি তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছেন। আগামী ১০ কার্যদিবসে এ রিপোর্ট দাখিল করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ঘটনার সময় পিডিবির একজন গাড়ি চালক জনগণের রোষানল থেকে কৌশলে পালিয়েছে। আটক ইঞ্জিনিয়ার রবিউল ইসলাম, সোহেল রানা, নাসির উদ্দিন, লাইনম্যান জালাল ফকির ও গাড়ির চালক জিয়াউর রহমান।

কারবাল এলাকার স্থানীয় বাসিন্ধা নজরুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার দুপুর ৩টার দিকে যশোর শহরের কারাবালা এলাকার রাস্তায় বিদ্যুৎতের মেইন লাইনের সমস্যা এলাকার অনেকগুলি বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। আমার তিনটি লাইনে সংযোগ দেয়ার জন্য পিডিবির লাইনম্যান জালাল ফকিরকে ২৫শ টাকা দেই। কিন্তু টাকা নিয়ে লাইন না দিয়ে আরো টাকার জন্য তালবাহান করতে থাকে। তিনি একই কায়দায় ২০থেকে ২২ জনের কাছ থেকে ৫শ থেকে ১ হাজার করে টাকা নিয়েছে। পরে স্থানীয় লোকজন সংঘবদ্ধ ভাবে চাপ দিলে লাইন দিতে বাধ্য হয়। তবে যারা টাকা দিতে পারিনি তাদের এখন পযন্ত লাইন দেয়া হয়নি। সেই কারণে লোকজন তাদের আটক করে রেখেছে।

একই এলাকার এলাকর বাসিন্ধা জুয়েল বলেন, ‘আমি ১ হাজার টাকা দিয়েছি এখন পর্যন্ত আমার বাড়ির বিদ্যুৎ লাইন দেয়া হয়নি। সংযোগ না দিলে ওদের এখন থেকে যেতে দেবনা এমনও হুমকি দেয়া হয়েছে। তবে, স্থানীয় বাসিন্দা খোকন সাংবাদিকদের বলেন ‘আমি ৫শ টাকা দিয়েছি। তবে চাপের মুখে আমার বিদ্যুৎ লাইন দিয়েছেন।’

তরিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি ১৫০০টাকা দিয়েছি সংযোগ দেয়ার জন্য। এখনও আমার বাড়ির বিদ্যুৎ লাইন দেয়া হয়নি। ওই এলাকার ব্যাবসায়ী রোকন ব্যাপারি সাংবাদিবদের বলেন, এভাবে ২০-২৫ জনের কাছ থেকে প্রায় ৩০-৩৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে লাইনম্যান জালাল ফকির। টাকা নেয়ার সময় জলাল ফকির বলেছিলেন, ‘এ টাকা আমি একা খাই না- ইঞ্জিনিয়ার রবিউল ইসলাম, সোহেল রানা ও নাসির উদ্দিনকে দিতে হয়।

অভিযুক্ত লাইনম্যান জালাল ফকির সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি লোকজনকের কাছ থেকে ৩৫ হাজার টাকা নিয়েছি, এটা ঠিক না। আমি নজরুল ইসলামের কাছ থেকে ২৫শ টাকা নিয়েছি। লাইন দিলে কেউ খুশি হয়ে ২ থেকে ৫শ টাকা দেয়। এটা তো কাজ করার পর খুশি হয়ে দেয়।’

অভিযুক্ত ইঞ্জিনিয়ার রবিউল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার সোহেল রানা, ইঞ্জিনিয়ার নাসির উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘ডিসলাইনে কারণে সমস্যায় ওখানে মোট ১১টা লাইন বিচ্ছিন্ন ছিল। মঙ্গলবার রাতে ৮টি লাইনে সংযোগ দেয়া হয়েছে। আজ বুধবার তিনটি লাইনের সংযোগ নিয়ে সমস্যার সৃষ্টি হয়। লাইনম্যান জালাল ফকির ৩৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে এমন প্রশ্নের উত্তরে বলেন, লাইনম্যান জালাল ফকির গরিব মানুষ। নিউজ করার দরকার নেই। নিউজ হলে তার চাকুরি চলে যেতে পারে।’

স্থানীয়রা আরো জানিয়েছে, ধর্মতলা বাজার কমিটির ধর্মতলা বাজার কমিটির সভাপতি জাহিদুল ইসলাম ডালিম, সেক্রেটারী নবীউজ্জামানসহ স্থানীয়া এগিয়ে আসলে লাইনম্যান জালাল ফকির সবার টাকা ফেরত দিয়েছে এবং আগামীতে এরকম কাজ করবেন না বলে মুচলেকা দিয়েছে। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ইঞ্জিনিয়াররা, লাইনম্যান চলে যায়।

এব্যাপারে কোতয়ালী থানার ইন্সেপেক্টর (তদন্ত) সমির কুমার সরকার বলেন, এঘটনা আমার জানা নেই। তবে পুলিশ পাঠানো হচ্ছে। ওয়েবজন পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানি (পিডিবি) যশোর-২ নির্বাহী প্রকৌশলী রেজাউল করিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, যশোর শহরের কারবালা ধর্মতলা এলাকার আমার অধীনে নয়।

ওয়েবজন পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানি (পিডিবি) যশোর-১ নির্বাহী প্রকৌশলী জাহান-ই-শবনাম অবরোধ বা মুচলেকার কথা জানেন না বলে তিনি বলেন, কারবালা এলাকায় লাইন সংযোগ নিয়ে একটি ঘটনা ঘটেছে। তবে ওই এলাকার কেউ কোন অভিযোগ দেয়নি। যেহেতু টাকা নিয়ে ঘটনা ঘটেছে, তাই আমার ইঞ্জিনিয়াররা গিয়ে সমাধান করেছে। ওই ঘটনায় নির্বাহী প্রকৌশলীকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ১০ কার্য্যদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দাখিল করতে বলা হয়েছে।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

Netaji Subhash Chandra Bose
BRTA
Bay Leaf Premium Tea

অসঙ্গতি প্রতিদিন -এর সর্বশেষ