Bahumatrik Multidimensional news service in Bangla & English
 
৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বুধবার ২২ নভেম্বর ২০১৭, ১:১৬ পূর্বাহ্ণ
Globe-Uro

‘গণেশ হালুই বেঙ্গল গবেষণা বৃত্তি’ পেলেন আহমেদ ইব্রাহীম


০৭ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার, ০১:০৬  এএম

বহুমাত্রিক ডেস্ক


‘গণেশ হালুই বেঙ্গল গবেষণা বৃত্তি’ পেলেন আহমেদ ইব্রাহীম
ছবি : বেঙ্গল ফাউন্ডেশন

ঢাকা : গণেশ হালুই বেঙ্গল গবেষণা বৃত্তির প্রথম প্রাপক হিসেবে আহমেদ ইব্রাহীমকে মনোনীত করা হয়েছে।এই বৃত্তির আওতায় আগামী এক বছর তিনি গবেষণাকাজ সম্পাদন এবং গবেষণাপ্রসূত প্রবন্ধ রচনা করবেন।

এছাড়া গবেষণা-সন্নিহিত জিজ্ঞাসা ও অন্বেষণের পথ প্রশস্ত করার লক্ষ্যে বেঙ্গল আর্টস প্রোগ্রামের পক্ষ থেকে গবেষকের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের একটি মুক্ত সংলাপের আয়োজন করা হবে। মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানিয়েছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন।

বিজ্ঞপিতে জানানো হয়, গবেষণা বৃত্তির জন্য দেশ-বিদেশ থেকে জমা পড়া প্রস্তাবনার মধ্যে তাইওয়ানের ফিওনা চ্যাং, বাংলাদেশের কেহকাশা সাবাহ, মুশাররাত শর্মী হোসেন/সালমা জামাল এবং ভারতের সুমনা ব্যানার্জীর প্রস্তাবনা বিশেষ সম্মাননার (অনারেবল মেনশন) জন্য নির্বাচিত হয়েছে।

আহমেদ ইব্রাহীমের গবেষণা প্রস্তাবনার শিরোনাম ‘লোকায়ত অবয়বে প্রচ্ছন্ন গণমানস - ঢাকায় রাজনৈতিক পোস্টার বিন্যাসে শিল্পরুচির বিবর্তন’ (Concealing the Populace in Public Space – Mapping Aesthetic Shifts in the Production of Political Posters in Dhaka)।

আহমেদ তাঁর গবেষণাকাজে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধকাল থেকে সমকাল পর্যন্ত রাজনৈতিক পোস্টার রচনা, তার অঙ্কন, রূপ ও শৈলীর গতিপথ অনুসন্ধান করবেন। তাঁর প্রতিপাদ্য বিষয় নিতুন কুন্ডু বা কামরুল হাসান তাঁদের বিন্যাসকৃত রাজনৈতিক পোস্টারে জনগণের সংগ্রামী চেতনা রূপায়ণে ব্রতী এবং ব্যক্তিমানসের ঊর্ধ্বে সমষ্টিগত চেতনা ও অধিকারকে ধারণ করতে প্রয়াসী ছিলেন।

সময়ের সঙ্গে এই গণচেতনাকে উজ্জীবিত করার ধারাটি পরিবর্তিত হয়ে পোস্টার রচনার ক্ষেত্রে ব্যক্তিকেন্দ্রিক রাজনৈতিক আদর্শ সঞ্চার প্রাধান্য পেয়েছে। গবেষণার মধ্য দিয়ে, পোস্টারের দৃশ্যকল্পে এই প্রক্রিয়ার গতিপথ, বিবর্তন ও বৈশিষ্ট্য এবং পর্যায়ক্রমিক তুলনামূলক বিশ্লেষণ ও অভিঘাত খতিয়ে দেখবেন আহমেদ ইব্রাহীম। প্রস্তাবনাপত্রে তিনি উল্লেখ করেছেন, ‘অনুসন্ধানের মধ্য দিয়ে স্থান ও কালিক রূপরেখায় খণ্ডিত অবয়ব এবং নানা দৃষ্টিকোণের শিল্পভাবনার মধ্যে সংলাপ রচনা করতে আমি আগ্রহী।’

গণেশ হালুই বেঙ্গল গবেষণা বৃত্তি ২০১৭-এর বিচারকম-লীর সদস্য ছিলেন বাংলাদেশের স্থপতি মেরিনা তাবাস্সুম ও চিত্রনির্মাতা নাঈম মুহাইমেন এবং ভারতের গবেষক সাবিহ আহমেদ।

শিল্পী গণেশ হালুইয়ের জন্ম ১৯৩৬ সালে বাংলাদেশের জামালপুরে। তিনি কলকাতার গভর্নমেন্ট কলেজ অব্ আর্টস অ্যান্ড ক্রাফটসের অ্যাপ্লাইড আর্ট বিভাগ থেকে ১৯৫৬ সালে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৯৮ পর্যন্ত একই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতা করেন। এ পর্যন্ত অগণিত সম্মাননা ও পুরস্কার লাভ করেছেন তিনি।

শিল্পচর্চার পাশাপাশি গবেষণাতে তাঁর বিশিষ্ট অবদান রয়েছে। দ্বি-বার্ষিক গণেশ হালুই বেঙ্গল গবেষণা গবেষণা বৃত্তি প্রদান শিল্পী গণেশ হালুইর আনুকূল্যে সম্ভব হয়েছে। বেঙ্গল ফাউন্ডেশন আর্টস গ্রোগ্রাম এই বৃত্তির সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
Bay Leaf Premium Tea
Intlestore

শিল্প-সংস্কৃতি -এর সর্বশেষ

Hairtrade