Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬, শনিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ৮:২৯ পূর্বাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

কুবির মাদকসেবী সেই দুই ছাত্রলীগ নেতা ও এক শিক্ষার্থীকে শোকজ


২১ অক্টোবর ২০১৯ সোমবার, ০৬:৪৫  পিএম

রিদওয়ানুল ইসলাম, কুবি প্রতিনিধি

বহুমাত্রিক.কম


কুবির মাদকসেবী সেই দুই ছাত্রলীগ নেতা ও এক শিক্ষার্থীকে শোকজ

কুমিল্লা : কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কু্বি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ৫০৬নং কক্ষে মাদক সেবনরত অবস্থায় আটক সেই দুই ছাত্রলীগ নেতা ও এক শিক্ষার্থীকে শোকজ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডি। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক নোটিশে এ তথ্য জানানো হয়।

২২ অক্টোবর বিকাল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অফিসে সশরীরে উপস্থিত থেকে সংশ্লিষ্ট তিন শিক্ষার্থীকে বক্তব্য প্রদানের নির্দেশ দেওয়া হয়।

শোকজে বলা হয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল প্রশাসন থেকে প্রেরিত জব্দকৃত মালামাল, প্রভোস্ট মো. জিয়া উদ্দিনের মাধ্যমে অগ্রায়ণকৃত পত্র পর্যালোচনা করে প্রক্টরিয়াল বডি প্রাথমিকভাবে মনে করে যে সংশ্লিষ্ট তিন শিক্ষার্থী মাদক গ্রহন করে, মাদক সরবরাহ করে হলের শৃঙ্খলা নষ্ট করছে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ক্ষুণ্ণ করছে।

শোকজে আরো বলা হয়, সংশ্লিষ্ট ঘটনায় ওই তিন শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবেনা, তা ওই শিক্ষার্থীরা আগামী ২২ অক্টোবর প্রক্টর অফিসে প্রক্টরিয়াল বডির সম্মুখে বক্তব্যে উপস্থাপন করবে। অন্যথায় প্রক্টরিয়াল বডি সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীদের অপরাধী হিসেবে গণ্য করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রচলিত বিধি মোতাবেক পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সুপারিশ করবে।

শোকজ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে মাদক সেবনের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। প্রক্টরিয়াল বডি ওই শিক্ষার্থীদের বক্তব্য শুনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের সুপারিশ করবে।

একই অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজীব কুমার করকে দল থেকে বহিষ্কার ও শাখা ছাত্রলীগের উপ সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক জসীম উদ্দিন বিজয়কে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৬ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টায় নিয়মিত হল পরিদর্শনের অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট মো. জিয়া উদ্দিন ও আবাসিক শিক্ষক আশীস চন্দ্র দাস হলের ৫০৬নং কক্ষে প্রবেশ করে সজীব কুমার কর, খলিলুর রহমান শিবলু ও জসীমউদ্দিন বিজয়কে মাদকাসক্ত অবস্থায় দেখতে পান। ওই সময় রুমের টেবিল, বালিশ ও তোশকের নীচে কাগজে মোড়ানো গাঁজা, মাদক সেবনে ব্যবহৃত প্রচুর পেপার, কিছু সাদা পাউডার, ওই তিন শিক্ষার্থীদের নিজের নয় এমন তিনটি মোবাইল ফোন ও একটি হাতুড়ি পাওয়া যায়।

 

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।