Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
১১ বৈশাখ ১৪২৬, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ৬:৪৩ অপরাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

দেশজুড়ে ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘট পালন করছে পাটকল শ্রমিকরা


১৫ এপ্রিল ২০১৯ সোমবার, ১০:০৮  এএম

শেখ হেদায়েতুল্লাহ, খুলনা

বহুমাত্রিক.কম


দেশজুড়ে ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘট পালন করছে পাটকল শ্রমিকরা

খুলনা: খুলনার রাষ্ট্রায়াত্ব নয়টি পাটকলে তৃতীয় দফায় ৯৬ ঘন্টা রাজপথ- রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। অবরোধের প্রথমদিন সোমবার শেষ হয়েছে।

বকেয়া মজুরি প্রদান ও মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ৯ দফা দাবি আদায়ে তৃতীয় সোমবার সকাল ৬টা থেকে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের উৎপাদন বন্ধ করে দেয়। পরে সকাল ৮টা থেকে রাজপথ- রেলপথ অবরোধ করে এ ধর্মঘট শুরু করে আন্দোলনরত পাটকল শ্রমিকরা। এর আগেও দু’দফা পাটকলের উৎপাদন বন্ধ এবং রাজপথ - রেলপথ অবরোধ করে আন্দোলন করেছিল শ্রমিকরা। রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ ও পাটকল শ্রমিক লীগের উদ্যোগে এ ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

পাটকল শ্রমিকদের ধর্মঘট শুরু হওয়ায় সকাল ৬ টা থেকে খুলনা রেলওয়ে স্টেশন থেকে কোনো রুটে ট্রেন ছেড়ে যায়নি। একই সঙ্গে নগরীর দৌলতপুর নতুন রাস্তা মোড়ে শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করায় খুলনা-যশোর মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েন দুর-দূরান্তগামী হাজারো মানুষ।

খালিশপুরের ক্রিসেন্ট জুটমিলের সিবিএ’র সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন এ বিষয়ে বলেন, মজুরি ও মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ৯ দফা দাবিতে শ্রমিকদের ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ পাটকল শ্রমিক লীগের খুলনা-যশোর অঞ্চলের আহ্বায়ক মো. মুরাদ হোসেন এ বিষয়ে বলেন, সোমবার থেকে শুরু হওয়া এ কমৃসূচি আগামী ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ৪ ঘণ্টা করে টানা ৯৬ ঘণ্টা পাটকল ধর্মঘট এবং সড়ক ও রেলপথ অবরোধ করা হবে । তিনি বলেন আগামী ২৫ এপ্রিল গেটসভা এবং ২৭, ২৮ ও ২৯ এপ্রিল ৭২ ঘণ্টার পাটকল ধর্মঘটসহ প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ৬ ঘণ্টা করে সড়ক ও রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হবে।

উল্লেখ্য, খুলনা-যশোর অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত খালিশপুর, দৌলতপুর, ক্রিসেন্ট, প্লাটিনাম, স্টার, ইস্টার্ন, আলীম, জেজেআই ও কার্পেটিংসহ রাষ্ট্রায়ত্ত ৯টি পাটকলে প্রায় ৩৩ হাজার শ্রমিক রয়েছেন। তাদের ৬ থেকে ১০ সপ্তাহের মজুরি বকেয়া রয়েছে।

আর্থিক সংকটের কারণে তাদের নিয়মিত মজুরি প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে না। অন্যদিকে মিলগুলোতে প্রায় ৩০০ কোটি টাকার উৎপাদিত পাটজাত পণ্য অবিক্রিত অবস্থায় পড়ে আছে। বিজেএমসি’র কর্তৃপক্ষ জানায়, খুলনা-যশোর অঞ্চলের ৯টি পাটকলের শ্রমিকদের ৪২ কোটি টাকার মজুরি এবং কর্মচারী-কর্মকর্তাদের আরো ১০ কোটি টাকার বেতন বকেয়া রয়েছে। সব মিলিয়ে প্রায় ৫২ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।