Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
৩ শ্রাবণ ১৪২৬, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

ড. রাজ্জাককে কৃষিমন্ত্রী করায় আনন্দ-উৎসবে বাকৃবি পরিবার


০৬ জানুয়ারি ২০১৯ রবিবার, ১১:১১  পিএম

কৃষিবিদ দীন মোহাম্মদ দীনু

বহুমাত্রিক.কম


ড. রাজ্জাককে কৃষিমন্ত্রী করায় আনন্দ-উৎসবে বাকৃবি পরিবার

ময়মনসিংহ: প্রথমবারের মত কোন কৃষিবিদ কৃষিমন্ত্রী হলেন, তাও আবার বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃতি গ্রাজুয়েট। তিনি কৃষিবিদ ড. আব্দুর রাজ্জাক। রোববার এই খবর প্রকাশ্যের আসার পর থেকে আনন্দে মেতেছে তাঁর শিক্ষা ও রাজনীতির তীর্থ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) পরিবার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এই শিক্ষার্থীকে কৃষিমন্ত্রী হিসেবে মনোনীত করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের দলমত নির্বিশেষে সকল সদস্যরা। একজন দক্ষ
কৃষিবিদ হিসেবে কৃষির পরতে পরতে রয়েছে তার গভীর মনযোগ। কৃষিপ্রধান বাংলাদেশকে অনেকদূর এগিয়ে নিতে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবেন বলেও আশা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের।

কৃষিবিদ ড. আব্দুর রাজ্জাক টাঙ্গাইল-১ (মধুপুর-ধনবাড়ী) আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদ সভাপতি। রোববার বিকালে আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন সরকারের মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব। এই তালিকায় কৃষিমন্ত্রী হিসেবে ঘোষণা করা হয় ড. আব্দুর রাজ্জাকের নাম। সোমবার বিকাল সাড়ে তিনটায় বঙ্গভবনে নতুন মন্ত্রিসভার শপথ বাক্য রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ পাঠ করাবেন।

ড. আব্দুর রাজ্জাক ১৯৭১ সনে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক এবং ১৯৭২ সনে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৮২ সনে যুক্তরাষ্ট্রের পারডু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি পিএইচডি অর্জন করেন। যুক্তরাষ্ট্রের পর তিনি যুক্তরাজ্যের অ্যাঞ্জেলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়েও পড়ালেখা করেছেন। বাংলাদেশে ফার্মিং সিস্টেম রিসার্চ ও স্থায়ী গ্রামীণ কৃষি উন্নয়ন বিষয়ে তিনি অন্যতম একজন বিশেষজ্ঞ।

ড. আব্দুর রাজ্জাক টাংগাইল জেলার ধনবাড়ী উপজেলার মুশুদ্দি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার জালাল উদ্দিন এবং মাতা রেজিয়া খাতুন। ড. রাজ্জাক বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনে (বিএডিসি) একজন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের মাধ্যমে তার কর্মজীবন শুরু করেন এবং ২০০১ সনে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা পরিষদের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হিসেবে চাকুরি জীবন শেষ করেন।

২০০১ সন থেকে টাঙ্গাইল-১ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পান কৃষিবিদ সাবেক ছাত্রনেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি সে বছর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হন। পরে ২০০৮ সনে নবম সংসদ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীকে হারিয়ে বিপুল ভোটে জয় লাভ করেন এবং আওয়ামী লীগ সরকারের খাদ্য ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান।

পরবর্তীতে ২০১৪ সনে ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নির্বাচিত হন ও অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পান।

একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য হন তিনি।  একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ইশতেহার প্রণয়ন কমিটির সভাপতি ছিলেন ড. রাজ্জাক। বাকৃবির সাবেক এই শিক্ষার্থীর হাত ধরে বাংলাদেশের কৃষিতে আমূল পরিবর্তন আসবে, কৃষিতে ঘটবে আধুনিকতার ছোঁয়া-এই আশা বাকৃবির কৃষিবিদদের।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।