Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
২৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ৭:৪১ পূর্বাহ্ণ
Globe-Uro

জাপানে প্রথম বাংলার নবান্ন উৎসব


১৫ নভেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ১০:৪২  পিএম

বহুমাত্রিক ডেস্ক


জাপানে প্রথম বাংলার নবান্ন উৎসব
ছবি- সংগৃহীত

প্রথমবারের মতো বাংলার ঐতিহ্যবাহী নবান্ন উৎসব ১৪২৫ উদযাপন করল জাপান প্রবাসী বৃহত্তর খুলনা সমিতি। গত ১১ নভেম্বর রোববার সন্ধ্যায় এ উৎসব পালন করা হয় জাপানের রাজধানী টোকিও শহরের ইয়াসকা স্টেশনের সেজাকি কমিউনিটি সেন্টারে।

বিদেশের মাটিতে থেকেও দেশীয় সংস্কৃতির ঐতিহ্য এবং ধারাবাহিকতা রক্ষায় উদ্দীপ্ত সমিতির ৩০০ সদস্য এতে অংশ নেন। বৃহত্তর খুলনার জাপান প্রবাসী ১৮টি পরিবারের মেয়েরা নিজেদের হাতে তৈরি রকমারি পিঠাপুলি, দেশীয় খাবার ও মিষ্টান্ন পরিবেশন করেন নবান্ন উৎসবে।

জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. সাহিদা আকতার, কমার্সিয়াল কাউন্সেলর হাসান আরিফ এবং কম্যুনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ উৎসাহী অনেক জাপানি নারীপুরুষের পাশাপাশি বিদেশি অতিথিরাও এতে যোগ দেন এবং বাঙালির ঐতিহ্যবাহী পিঠাপুলির ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানের এক পর্বে কীভাবে বাংলার নারীরা ঐতিহ্যবাহী ঢেঁকিতে ধান ভানার পর চাল বের করে এবং তা গুড়া করার পর কীভাবে চালের গুড়া দিয়ে পিঠা তৈরি হয় তা তুলে ধরেন শিল্পীরা। আয়োজনে বাঙালি লোকগান এবং দেশীয় নৃত্য পরিবেশন ছাড়াও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেন সমিতির সদস্যরা।

এই প্রথমবারের মতো জাপানের মাটিতে আয়োজিত এ নবান্ন উৎসব বিষয়ে বৃহত্তর খুলনা সমিতির কর্মকর্তা জেসমিন সুলতানা কাকলি এবং তানিজা শারমিন সেবু বলেন, বিদেশে থেকেও দেশের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির অনুশীলন এবং তাকে বিদেশিদের সামনে তুলে ধরার লক্ষ্যেই আমাদের এ প্রয়াস। সমিতির অন্যতম সংগঠক বহ্নি আহমেদ এবং গোলাম মাসুম জিকো বলেন, এখন থেকে প্রতিবছর নিয়মিত নবান্ন উৎসবের পাশাপাশি অন্যান্য উৎসবগুলিও উদযাপনের পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।