Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, রবিবার ২৬ মে ২০১৯, ৯:১৮ পূর্বাহ্ণ
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে বিমান বাহিনীর প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান


১২ ডিসেম্বর ২০১৮ বুধবার, ১১:৩৩  পিএম

বহুমাত্রিক ডেস্ক


আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে বিমান বাহিনীর প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান

ঢাকা : রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ মৌলিক প্রশিক্ষণের যথাযথ চর্চা এবং প্রয়োগের মাধ্যমে পেশাগত দক্ষতার উন্নয়ন করতে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর (বিএএফ) সদ্য কমিশনপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি বিমান বাহিনীর তরুণ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, একাডেমি থেকে গ্রহণ করা মৌলিক প্রশিক্ষণের যথাযথ চর্চা এবং প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আপনাদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়নে আপনাদেরকে সব সময়ের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। তিনি বুধবার একাডেমির প্যারেড গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর রাষ্ট্রপতি প্যারেড অনুষ্ঠানে ভাষণ প্রদানকালে এ আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি সর্বোচ্চ সততা, আন্তরিকতা এবং নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে বিএএফ সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার পাশাপাশি দেশের যে কোন প্রয়োজনে ভূমিকা রাখতে বিএএফ সদস্যদের সবর্দা প্রস্তুত থাকতে হবে।

তিনি বলেন, আমি আশা করছি, আপনারা প্রকৃত দেশপ্রেম নিয়ে এবং পবিত্র সংবিধানের প্রতি পূর্ণ আস্থা রেখে বাংলাদেশের আকাশ মুক্ত রাখতে আপনাদের নেয়া শপথ পালন করা থেকে কখনোই পিছপা হবেন না।

রাষ্ট্রপতি বিএএফ খুব শিগগির একটি সর্বাধুনিক বিমান বাহিনী হিসাবে আত্মপ্রকাশ করবে বলে দৃঢ় আশা প্রকাশ করে বলেন, বর্তমান সরকার বিমান বাহিনীকে আধুনিক এবং সময়োপযোগী করতে বিভিন্ন যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে। তিনি বলেন, আমরা বিমান বাহিনীতে পঞ্চম প্রজন্মের ফাইটার বিমান, উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন বিমান প্রতিরক্ষা রাডার এবং আধুনিক যুদ্ধাস্ত্র সংযোজন করেছি। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিরক্ষা নীতির আলোকে ফোর্স গোল- ২০৩০ এর উল্লেখ করে এই নীতি বিমান বাহিনীকে আরো শক্তিশালী করবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেণ, বিমান বাহিনী একাডেমির জন্য সদ্য নির্মিত আন্তর্জাতিক মানের বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্স ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে তথ্য প্রযুক্তির (আইটি) ব্যবহার নিশ্চিত করবে। তিন বঙ্গবন্ধুর বিদেশ নীতি ‘সকলের সাথে বন্ধুত্ব, কারো সাথে বৈরিতা নয়’এর উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশ যুদ্ধ চায় না, শান্তি চায়, আমাদের বাহিনী দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

রাষ্ট্রপতি এর আগে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসাবে একটি মার্চ পার্স্টের সুসজ্জিত প্যারেড উপভোগ ও সালাম গ্রহণ করেন। তিনি অনুষ্ঠনে ফ্লাইট ক্যাডেটদের মধ্যে ট্রপি, সনদপত্র ও ফালাইং ব্যাজ হস্তান্তর করেন।

আজকের শীতকালীন রাষ্ট্রপতি প্যারেডে দশ জন নারী কর্মকর্তাসহ মোট ৬১ জন ফ্লাইট ক্যাডেট কমিশন লাভ করেন।

ফ্লাইট ক্যাডেট স্কোয়াড্রন জুনিয়র আন্ডার রিয়ানা আজাদ ৭৫ বিএএফ একাডেমি কোর্সে সর্বোচ্চ নৈপুণ্যের জন্য সোর্ড অব অনার লাভ করেন। ফ্লাইট ক্যাপ্টেন তানভীর ইসলাম রাব্বি ব্যাচের জেনারেল সার্ভিস ট্রেনিংয়ে তার সেরা নৈপুণ্যের জন্য কমানডেন্ট ট্রফি গ্রহণ করেন।

ফ্লাইট ক্যাডেট আরএইচএম নাফি ফ্লাইং ট্রেনিংয়ে সেরা নৈপুণ্যের জন্য বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান ট্রফি পান। ফ্লাইট ক্যাডেট মো. নাফিজ আল মানার গ্রাউন্ড ব্যাচে বিমান বাহিনী প্রধান ট্রফি পান। সার্বিক পারফর্মেন্সের জন্য ১নং স্কোড্রন চ্যাম্পিয়ন ¯েকায়াড্রন পান।

অনুষ্ঠানে কূটনীতিক, রাজনৈতিক নেতৃবন্দ, তিন বাহিনীর পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ, সংসদ সদস্যবর্গ, রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এবং উচ্চ পদস্থ বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তাগন এবং সদ্য কমিশন প্রাপ্ত কর্মকর্তাদের পিতা-মাতাগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।