Bahumatrik Logo
২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩, শনিবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ৩:১২ পূর্বাহ্ণ

কুয়েটে সম্মেলন : পূর্বাভাষ ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে দিতে পারে


২০ মে ২০১৬ শুক্রবার, ০৮:২২  পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুমাত্রিক.কম


কুয়েটে সম্মেলন : পূর্বাভাষ ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে দিতে পারে
ছবি-বহুমাত্রিক.কম

খুলনা : খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে(কুয়েট) “কনফারেন্স অন ওয়েদার ফোরকাস্টিং এন্ড অ্যাডভান্স ইন ফিজিক্স: বাংলাদেশ পার্সপেকটিভ” শীর্ষক দিনব্যাপি সম্মেলন শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের আয়োজনে এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটরিয়ামে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের(ইউজিসি) কোয়ালিটি অ্যাস্যুরেন্স সেলের(কিউএসি) প্রধান অধ্যাপক ড. মেজবাউদ্দীন আহমেদ।

কুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর এতে সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের(বুয়েট) গ্লাস এন্ড সিরামিক বিভাগের পরামর্শক অধ্যাপক ড. আব্দুল হাকিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্থ এন্ড এনভায়রনমেন্ট সায়েন্স ফ্যাকাল্টির ডিন অধ্যাপক ড. এ. এস. এম. মাকসুদ কামাল, কুয়েটের পুরকৌশল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মাহাবুব আলম।

ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তৃতা করেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. শিবেন্দ্র শেখর শিকদার এবং স্বাগত বক্তৃতা করেন সম্মেলনের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ ইলিয়াস আক্তার।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় অধ্যাপক ড. মেজবাউদ্দীন আহমেদ বলেন, প্রকৃতিকে নিয়ন্ত্রণ করা আপাতদৃষ্টিতে সম্ভব নয়, তবে এ সম্পর্কিত জ্ঞান এবং পূর্বাভাষ জীবন হানী ও ক্ষয় ক্ষতি অনেক কমিয়ে দিতে সক্ষম। পদার্থ বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রা এবং এ সংক্রান্ত গবেষণা আমাদেরকে সতর্ক হতে সহায়তা করছে এবং এমন একদিনের আশা আমরা করি যেদিন ভুমিকম্পসহ বিভিন্ন দূর্যোগ আঘাত হানার সঠিক সময় আমরা জানতে সক্ষম হবো।

অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর তাঁর বক্তৃতায় বলেন, পরিবর্তিত বৈশ্বিক আবহাওয়ার বর্তমান প্রেক্ষাপটে সম্মেলনটি যথেষ্ট সময় উপযোগী। বর্তমানে বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগ হানা দিলেও ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ পূর্বের চেয়ে অনেক কম। এর প্রধান কারন দূর্যোগ সম্পর্কে পূর্বেই আমরা সতর্ক হতে পারছি। ওয়েদার ফোরকাস্টিং এর মাধ্যমেই এটি সম্ভব হয়েছে।

বিকেলে সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর এবং সভাপতিত্ব করেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. শিবেন্দ্র শেখর শিকদার।

দিনব্যাপি সম্মেলনে মোট ৭টি সেশনে ৪৮টি গবেষণা নিবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। সম্মেলনে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতিষ্ঠানের দেড় শতাধিক গবেষক, শিক্ষক, সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রের শিক্ষার্থীগণসহ অন্যান্যরা অংশগ্রহণ করেন।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।