Bahumatrik Multidimensional news service in Bangla & English
 
৫ ভাদ্র ১৪২৫, সোমবার ২০ আগস্ট ২০১৮, ২:৩৭ অপরাহ্ণ
Globe-Uro

সড়কে ‘দূর্ঘটনা’ নয়-হত্যাকাণ্ড হচ্ছে : সমাবেশে চলচ্চিত্রকর্মীরা  


০৬ আগস্ট ২০১৮ সোমবার, ১২:৩০  এএম

বহুমাত্রিক ডেস্ক


সড়কে ‘দূর্ঘটনা’ নয়-হত্যাকাণ্ড হচ্ছে : সমাবেশে চলচ্চিত্রকর্মীরা   

ঢাকা : বাংলাদেশের সড়ক পথে যা ঘটছে তা হত্যাকাণ্ড; এগুলোকে দূর্ঘটনা বলে ছাড় দেয়ার কিছু নেই বলে মন্তব্য করেছেন দেশের চলচ্চিত্রকর্মীরা।

বাংলাদেশর ক্রিয়াশীল চলচ্চিত্র সংসদসমূহ এবং বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকর্মীরা সম্মিলিতভাবে শনিবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শামসুন নাহার হল সংলগ্ন সড়কদ্বীপে স্থাপিত তারেক মাসুদ- মিশুক মুনীর স্মরণ স্থাপনার সামনে এক প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনে অবিলম্বে এই হত্যার মিছিল বন্ধ এবং নিরাপদ সড়কের দাবি জানিয়েছেন।

চলচ্চিত্র নির্মাতা ও ফেডারেশন অব ফিল্ম সোসাইটিজ অব বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক বেলায়াত হোসেন মামুনের সঞ্চালচনায় সমাবেশ ও মানববন্ধনে বক্তব্য প্রদান করেন বিশিষ্ট মানবাধিকারকর্মী ড. হামিদা হোসেন, বিশিষ্ট চলচ্চিত্রকার ক্যাথরিন মাসুদ, চলচ্চিত্র গবেষক ও অধ্যাপক ড. ফাহমিদুল হক এবং চলচ্চিত্রকার প্রসূন রহমান।

বিকাল ৫টায় সমাবেশের শুরুতে মৌণ মানববন্ধনে সকলে অংশগ্রহণ করেন। সন্ধ্যা ৬টায় সমাবেশে বক্তৃতাপর্ব শুরু হয়। বক্তৃতাপর্বের শেষে সন্ধ্যা ৭টায় সড়ক-মহাসড়কে নিহত সকলের স্মরণে একমিনিট নিরবতা পালন করে আলোক প্রজ্জ্বোলন করা হয়।

সমাবেশ ও মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্রকার মসিহউদ্দিন শাকের, চলচ্চিত্রকার আবু সাইয়ীদ, শিল্পী সুলেখা চৌধুরী, চলচ্চিত্রকার জাঈদ আজিজ, চলচ্চিত্র সংসদকর্মী ডা. জহিরুল ইসলাম কচি, চলচ্চিত্র সংসদকর্মী ও আলোকচিত্রশিল্পী মীর শামসুল আলম বাবু, শিল্পী ও অ্যাকটিভিস্ট আহমেদ মনিরুদ্দিন তপু, চলচ্চিত্রকার পলাশ রসূল, চলচ্চিত্রকার হুমায়রা বিলকিস, চলচ্চিত্রকার তাসমিয়াহ আফরিন মৌ, চলচ্চিত্রকার ও বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মৃদুল মামুন, চলচ্চিত্র সংসদকর্মী রোদেলা নিরুপমা, চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চলচ্চিত্র সংসদকর্মী হাবিবুর রহমান, চলচ্চিত্রকার খন্দকার সুমন, চলচ্চিত্রকার ও চলচ্চিত্র সংসদকর্মী অদ্রি হৃদয়েশ, চলচ্চিত্রকর্মী আবির শ্রেষ্ঠ, চলচ্চিত্র সম্পাদক চৈতালী সমাদ্দর, চলচ্চিত্রকার অতনু পাটোয়ারী, চলচ্চিত্র সংসদকর্মী ও আলোকচিত্রশিল্পী সাদেক হোসেন সনি, ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক হাফিজুল ইসলাম আপন, চলচ্চিত্রকর্মী রিপন কুমার দাশ, চলচ্চিত্র সংসদকর্মী ও স্থপতি সাউদা আক্তার, চলচ্চিত্র সংসদকর্মী রাসেল আহমেদ রনি, চলচ্চিত্র নির্মাতা হুমায়ন কবির শুভ, চলচ্চিত্রকর্মী সঙ্গীতা অপরাজিতাসহ অনেক তরুণ চলচ্চিত্রকার এবং চলচ্চিত্রকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

বক্তারা সমাবেশে বলেন, সড়কে নৈরাজ্য চলছে বহুকাল ধরে। বারবার আমরা পিষ্ট হচ্ছি, আমাদের রক্ত-হাড়-মজ্জা মিশে যাচ্ছে কালসিটে পথে। আমাদের স্বপ্ন, আমাদের জীবন থমকে যাচ্ছে সড়কের মড়কে। এই মড়ক মনুষ্যসৃষ্ট; এই হত্যার বিস্তার মানুষের তৈরি... আর এইসব মানুষ বাংলাদেশের বিচারব্যবস্থাকে, বাংলাদেশের আইনকে, বাংলাদেশের সড়ক ব্যবস্থাপনার সকল সিস্টেমকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখাচ্ছে বারংবার। হত্যাকারীদের পিশাচের মত দাঁতাল হাসি আমাদের পথে নামতে বাধ্য করছে; আমাদের শিশু-কিশোরদের পথে নামতে বাধ্য করেছে; মানুষের জীবন সবচেয়ে মূল্যবান; আর তা সড়কের কালো পিচের রাস্তায় পিষ্ট হওয়ার নয়। বাংলাদেশের সড়ক পথে যা ঘটছে তা হত্যাকা-; এগুলোকে দূর্ঘটনা বলে ছাড় দেয়ার কিছু নেই।

বক্তারা আরও বলেন, গড়ি চালনার প্রশিক্ষণবিহীন চালক, ফিটনেসবিহীন গাড়ি- লাইসেন্সবিহীন গাড়ি ও মাদকাসক্ত চালক- হেল্পারদের পথে ছেড়ে দিয়ে রাষ্ট্র এই সব হত্যাকে ‘দূর্ঘটনা’ বলতে পারে না।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
ভাগ হয়নি ক' নজরুল
Bay Leaf Premium Tea
Intlestore

আনন্দধারা -এর সর্বশেষ

Hairtrade