Bahumatrik Multidimensional news service in Bangla & English
 
১০ মাঘ ১৪২৪, মঙ্গলবার ২৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২:০৭ অপরাহ্ণ
Globe-Uro

রুট পারমিট ছাড়াই চলছে এম এম লাব্বাইক পরিবহণ


০১ জানুয়ারি ২০১৮ সোমবার, ০২:৩৪  এএম

তুহিন আহামেদ, নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুমাত্রিক.কম


রুট পারমিট ছাড়াই চলছে এম এম লাব্বাইক পরিবহণ
ছবি : বহুমাত্রিক.কম

সাভার : আদালতের নিষেধাজ্ঞা ও বিআরটিএ এর নিয়ম অমান্য করে কোন রকম রুট পারমিট ছাড়াই চললে এম এম লাব্বাইক নামের একটি পরিবহণ। এবিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) ঢাকা জেলা বরাবরে লিখিত একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

গত ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখে লাব্বাইক ট্রান্সপোর্ট (প্রাঃ) লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাক্ষরিত এ অভিযোগটি করা হয়। অভিযোগের পরেও বহাল তবিয়তে চলছে রুট পারমিট ছাড়া এম এম লাব্বাইক পরিবহণ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, লাব্বাইক ট্রান্সপোর্ট (প্রাঃ) লিমিটেড কোম্পানি ২০০৯ সালে অধিদপ্তর কর্তৃক নিবন্ধিত হয়ে যৌথ মূলধনী কোম্পানী ও ফার্মসমূহের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এছাড়া ঢাকা ইপিজেড থেকে নারায়নগঞ্জ লিংক রোড রুটে যাত্রী সেবা দিয়ে আসছে। কিন্তু বছরখানেক আগে কিছু লোক ব্যক্তিগত আক্ষেপ বশত যৌথ মূলধনী কোম্পানি ও ফার্মসমূহের অধিদপ্তর কর্তৃক এম এম লাব্বাইক পরিবহণ (প্রাঃ) লিঃ নামে একটি কোম্পানি নিবন্ধন করেন। যেহেতু এমএম লাব্বাইক পরিবহন পরিবহন (প্রাঃ) লিঃ পরবর্তিতে নিবন্ধিত, তাই কোম্পানি আইন ১৯৯৪ এর ১১(২) ধারা মতে এম এম লাব্বাইক পরিবহন (প্রাঃ) লিঃ নাম পরিবর্তনযোগ্য। ১৯৯৪ এর ১১(২) ধারা মতে যৌথ মূলধনী কোম্পানি ও ফার্মসমূহের অধিদপ্তর বরাবর নাম পরিবর্তনের জন্য আবেদন করলে গত ২৬ অক্টোবর তারিখে স্মারক নং রেজসকো/৭৬৫(১) একটি পত্রমূলে এম এম লাব্বাইক পরিবহন (প্রাঃ) লিঃ কে নাম পরিবর্তনের জন্য নির্দেশ দেন।

কিন্তু তারা নাম পরিবর্তনের কোন কার্যক্রম গ্রহণ না করায় মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনে রীট পিটিশন নং ১৬২২৮/২০১৭ দায়ের করলে হাইকোর্ট গত ২০ নভেম্বর এম এম লাব্বাইক পরিবহণ (প্রাঃ) লিঃ এর স্থগিতাদেশ দেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের আপিল ডিভিশনে তারা সিভিল পিটিশন ফর লীভ টু আপিল নং-৪৩৫২/২০১৭ দায়ের করলে সুপ্রিম কোর্টের আপিল ডিভিশন হাইকোর্টের দেওয়া স্থগিতাদেশ স্থগিত করে তিন মাসের মধ্যে এম এম লাব্বাইক পরিবহণ (প্রাঃ) লিঃ কে নাম পরিবর্তনের নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে আপিল বিভাগের ফুল বেঞ্চ এমএম লাব্বাইক এর নাম পরিবর্তনের রায় বহাল রেখে সি.পি নং- ৪৩৫২/২০১৭ চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করেন। কিন্তু তারা এ আদেশ অমান্য করে নাম পরিবর্তন না করে এবং রুট পরমিট না থাকা সত্বেও তাদের পরিবহণ চালাচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, বিআরটিসির গত ১৭-১০-২০১৭ এর মিটিং এর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রুট পেতে হলে (নতুন কোম্পানীর ক্ষেত্রে) প্রত্যেক গাড়ীর রেজিষ্ট্রেশন ১৭-১০-২০১৭ এর পরে হওয়া বাধ্যতামূলক। কিন্তু এমএম লাব্বাইক পরিবহণ (প্রাঃ) লিঃ এর সবগুলো গাড়ী পুরাতন হওয়ায় অদ্যবধি তাদের এ-৪২১ নং রুটে কোন গাড়ীর পারমিট স্লিপ ইস্যু হয়নি।

লাব্বাইক ট্রান্সপোর্ট (প্রাঃ) লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ হাসান জানান, কোন রকম রুট পারমিট ছাড়াই এম এম লাব্বাইক পরিবহণ পুরাতন গাড়িগুলো মেরামত করে চালাচ্ছে। ফলে আমাদের লাব্বাইক পরিবহণের নিয়মিত যাত্রীরা ভুলক্রমে এম এম লাব্বাইকে উঠে বিরম্ভনার শিকার হচ্ছে। এতে আমাদের প্রতিষ্ঠানের দূর্নাম হচ্ছে।

এমএম লাব্বাইক পরিবহণ (প্রাঃ) লিঃ এর পরিচালক কামাল হোসেন জানান, আইনি জটিলতার কারণে আমরা এখনো রুট পারমিট পাইনি। এছাড়া নাম পরিবর্তনের জন্য আমাদের তিন মাস সময় দেওয়া হয়েছে। নাম পরিবর্তন বাধ্যতামূলকভাবে করতে হলে অবশ্যই পরিবর্তন করে নিব।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
Bay Leaf Premium Tea
Intlestore

অসঙ্গতি প্রতিদিন -এর সর্বশেষ

Hairtrade