Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
৭ কার্তিক ১৪২৫, সোমবার ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৬:৩৯ অপরাহ্ণ
Globe-Uro

যশোরে অগ্নিকান্ডে অন্তত দুইজনের মৃত্যু


২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার, ১২:৪৫  এএম

কাজী রকিবুল ইসলাম

বহুমাত্রিক.কম


যশোরে অগ্নিকান্ডে অন্তত দুইজনের মৃত্যু
ছবি : বহুমাত্রিক.কম

যশোর : যশোর ঢাকা মহাসড়কের নওয়াপাড়ায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে অন্তত দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। পুড়ে কয়লা হয়ে যাওয়ায় তাদের শনাক্ত করা যায়নি। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিট আগুন প্রায় নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে।

এদিকে মানুষের ছোটাছুটিতে দুইজন আহত হওয়ায় তাদেরকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা হলো- যশোর সদর উপজেলার বড় বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের শফিয়ারের ছেলে কবির হোসেন এবং একই উপজেলার রহেলাপুর গ্রামের আলমের ছেলে ট্রাক হেলফার আশরাফুল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার রাত ৯টার দিকে যশোর-ঢাকা মহাসড়কের রজনীগন্ধা ফিলিং স্টেশনের পাশেই জনৈক পিকুল, সুমন ও সোহরাবের যৌথ মটরসাইকেলের গ্যারেজে বৈদ্যুতিক ট্রান্সমিটারে বার্স্ট হয়ে আগুন ধরে যায়। কেবলের এই আগুন ক্রমে তা ছড়িয়ে পড়ে থাকে। দাউ দাউ করে আগুন জ্বলার সময় বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়।

স্থানীয়দের ধারণা, পুড়ে যাওয়া গাড়িগুলোর কোনোটিতে কেমিক্যাল বা অন্য কোনো দাহ্য পদার্থ ছিল। এর ফলেই আগুন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। আগুন দ্রুত বিস্তৃত হওয়ায় আশপাশের বাড়িঘরে থাকা মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। আগুনের উল্কা দেখে আশে পাশের হাজার হাজার লোক ঘটনাস্থলে হাজির হয়েছেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রনে নেয়ার চেস্টা করছে। পরবর্তীতে আরও চারটি ইউনিট এসে যোগ দেয় আগুন নিয়ন্ত্রনের কাজে। আগুনে গ্যারেজে পার্ক করা একটি কাভার্ড ভ্যান, কয়েকটি ট্রাক পুড়ে ছাই হয়েছে বলে জানিয়েছেন খাজুরা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আক্তারুজ্জামান তারেক।

ঘটনাস্থলে অবস্থান করা যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাইমুর রহমান জানান, আগুনে পুড়ে অন্তত দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস যশোর স্টেশনের সহকারী পরিচালক পরিমলচন্দ্র কুণ্ডু দুইজনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, ‘আগুন পুরোপুরি না নেভা পর্যন্ত আর কোনো লাশ আছে কি না তা নিশ্চিত করে বলা যাবে না।’ আর আগুনে পুড়ে কয়লা হয়ে যাওয়ায় তাদের পরিচয় শনাক্ত করার মতো কোন পরিস্থিতি এখনো হয়নি। পুড়ে কয়লা হওয়া লাশ দুটি উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে বলে হাসপাতালের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।

আগুন লাগার পর সেখানে উপস্থিত লোকজন দ্রুত পালানোর চেষ্টা করেন। এসময় কবির হোসেন ও আশরাফুল আহত হন। তাদেরকে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতারের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘আহত কবিরের মাথার চুল পুড়ে গেছে আগুনে। এছাড়া তার কোমরে আঘাত লেগেছে। আর আশরাফুল পা ও কোমরে আঘাতপ্রাপ্ত।’

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।