Bahumatrik Multidimensional news service in Bangla & English
 
৭ আষাঢ় ১৪২৫, শুক্রবার ২২ জুন ২০১৮, ৫:৩০ পূর্বাহ্ণ
Globe-Uro

ব্রুসেলোসিসের প্রতিরোধে ভ্যাকসিন দেওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের


১১ মার্চ ২০১৮ রবিবার, ০২:০৫  এএম

বাকৃবি প্রতিনিধি

বহুমাত্রিক.কম


ব্রুসেলোসিসের প্রতিরোধে ভ্যাকসিন দেওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের
ছবি : বহুমাত্রিক.কম

ময়মনসিংহ : ‘ব্রুসেলোসিস একটি ব্যাকটেরিয়াঘটিত সংক্রামক রোগ। এটি ছোয়াচে ও জুনোটিক রোগ। এ কারণে প্রতিবছর ৬০ মিলিয়ন আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে। তাই এই রোগ সংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধে ভ্যাকসিন দেওয়া প্রয়োজন।’

শনিবার সকাল ১০টায় মেডিসিন বিভাগে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. সিদ্দিকুর রহমান এসব কথা জানান।

সম্মেলনের পূর্বে দেশের প্রথম ব্রুসেলোসিস রোগের মলিকুলার ডায়গনোসিস, চিকিৎসা ও প্রতিকারের উদ্দেশ্যে ‘লাইভস্টক অ্যান্ড হিউম্যান ব্রুসেলোসিস’ নামক একটি গবেষণাগারের শুভ উদ্বোধন করা হয়। গবেষণাগারটি উদ্বোধন করেন কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের প্রোগ্রাম ডাইরেক্টর (লাইভস্টক ও ফিসারীজ) ড. কাজী এম. কমরউদ্দিন। এটি দেশে ব্রুসেলোসিস নিয়ে উচ্চতর গবেষণা করার সুযোগ সৃষ্টি করবে জানান গবেষকরা।

প্রধান গবেষক অধ্যাপক ড. মো. সিদ্দিকুর রহমানের নেতৃত্বে কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় তিন বছর মেয়াদী ‘লাইভস্টক ও হিউম্যান ব্রুসেলোসিসঃ মলিকুলার ডায়গনোসিস, চিকিৎসা ও প্রতিকার’ প্রকল্প পরিচালিত হবে। এতে ব্রুসেলোসিস রোগের নির্দিষ্ট প্রজাতি নির্ণয়, চিকিৎসা ও প্রতিকার নিয়ে গবেষণা পরিচালিত হবে।

পরে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগীয় সম্মেলন কক্ষে ব্রুসেলোসিসের উপর এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. আরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. জসিমউদ্দিন খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভেটেরিনারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. প্রিয় মোহন দাস, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ. এস মাহফুজুল বারী। কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন প্রধান গবেষক অধ্যাপক ড. মো. সিদ্দিকুর রহমান।

এসময় ভেটেরিনারি অনুষদের শিক্ষক, গবেষক, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের শিক্ষক, গবেষক, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রিমাউন্ট ভেটেরিনারি ফামর্সকোরের কর্মকর্তা, মানুষ ও গবাদিপশুর ঔষধ ও টিকা উৎপাদন ও বাজারজাতের সাথে জড়িত কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান গবেষক অধ্যাপক ড. মো. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আমি ব্রুসেলোসিস নিয়ে গত ২০ বছর ধরে কাজ করছি। ব্রুসেলোসিস এর কয়েকটি প্রজাতি রয়েছে আমরা প্রথমে শনাক্ত করবো কোন প্রজাতি দায়ী। এরপর চিকিৎসা পদ্ধতি, প্রতিকার ও প্রতিরোধ ব্যবস্থা নিয়ে কাজ করবো। এ গবেষণার মাধ্যমে ৭জন পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করবে বলেও জানান তিনি।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
ভাগ হয়নি ক' নজরুল
Bay Leaf Premium Tea
Intlestore

কৃষি -এর সর্বশেষ

Hairtrade