Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
২ কার্তিক ১৪২৫, বুধবার ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ৭:৪৯ অপরাহ্ণ
Globe-Uro

বাকৃবিতে অ্যাকুয়াপনিক্স বিষয়ক আর্ন্তজাতিক কর্মশালা


২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৮:০৫  পিএম

বাকৃবি প্রতিনিধি

বহুমাত্রিক.কম


বাকৃবিতে অ্যাকুয়াপনিক্স বিষয়ক আর্ন্তজাতিক কর্মশালা
ছবি : বহুমাত্রিক.কম

ময়মনসিংহ : বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) বৃহস্পতিবার দু’দিনব্যাপী অ্যাকুয়াপনিক্স বিষয়ক আন্তর্জাতিক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের সম্মেলন কক্ষে ওই কর্মশালার উদ্বোধন করা হয়।

জানা যায়, কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক ড. জি. ভারনন বায়ার্ড। তিনি বলেন, অ্যাকোয়াপনিক্স হচ্ছে অ্যাকুয়া কালচার ও হাইড্রপনিক্সের সমন্বয়ে গঠিত একটি চাষাবাদ পদ্ধতি। এটি খুবই সাধারণভাবে চাষাবাদ করা যায়। একটি কন্টেইনার বা অন্য যেকোনো পাত্রে গাছ লাগিয়ে গ্রোবেড তৈরি করতে হয়। পাম্পের সাহায্যে মাছের ট্যাংক থেকে পানি সরবরাহ করা হয়। পানি মিডিয়ার মাধ্যমে চুয়ে চুয়ে গাছের শিকড়ে পৌঁছে এবং পরবর্তীতে আবার মাছের ট্যাংকে স্থানান্তরিত হয়।

গাছগুলো নিষ্কাশনের মাধ্যমে পানি থেকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি নিয়ে নেয় এবং পানিকে পরিষ্কার করে মাছের জন্য উপযোগী করে তোলে। গ্রোবেড মিডিয়ার পৃষ্ঠে ব্যাকটেরিয়া থাকে। যা নাইট্রোজেন সংবন্ধনে কাজ করে। এতে বিভিন্ন ধরনের মাছ চাষ করা যায়। এই পদ্ধতিতে যথেষ্ট পরিমাণ মাছের চাষ করা যায় এবং রিসারকুলেটিং সিস্টেমের কারনে খুব কম পানির প্রয়োজন হয়।

গবেষণায় দেখা গেছে মাটিতে শাকসবজি চাষ করতে যে পরিমাণ পানির প্রয়োজন হয়, তার ১০ ভাগের ১ ভাগ পানি লাগে অ্যাকোয়াপনিক্স পদ্ধতিতে। অ্যাকোয়াপনিক্স পদ্ধতির কার্যক্ষমতা অনেক বেশি। ৮ মি. বাই ৪ মি. একটি জাায়গায় ৬ মাসে ৫০ কেজি মাছ এবং কয়েকশ কিলোগ্রাম শাকসবজি উৎপাদন করা সম্ভব।

এতে চাষের জন্য নিড়ানি বা সারের প্রয়োজন পরেনা। খুবই স্বল্প সময় ও শ্রমের বিনিময়ে এই পদ্ধতিতে চাষাবাদ করা যায়।  কর্মশালাটির সভাপতিত্ব করেন অ্যাকুয়াকালচার বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মাহ্ফুজুল হক । এতে প্রধান অতিথি হিসেবে অধ্যাপক ড. মো. গিয়াস উদ্দিন আহমদ উপস্থিত ছিলেন ।

এতে দেশের এবং বিদেশের প্রায় ৫০ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করবেন। প্রশিক্ষক হিসেবে অ্যাকুয়াপনিক্সের উদ্বাবক বাকৃবি মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের অ্যাকুয়াকালচার বিভাগের অধ্যাপক ড. এম এ সালাম ও আমেরিকার লিডিং সাইন্স ইউনিভার্সিটি ও ন্যাশনাল হাওয়াইয়ের অধ্যাপক ড. জি. ভারনন বায়ার্ড উপস্থিত ছিলেন।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।