Bahumatrik Multidimensional news service in Bangla & English
 
৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, সোমবার ২০ নভেম্বর ২০১৭, ৭:৩৬ অপরাহ্ণ
Globe-Uro

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্যের বিরুদ্ধে মামলা


১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ বৃহস্পতিবার, ০২:০৭  এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুমাত্রিক.কম


নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্যের বিরুদ্ধে মামলা

ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহের ত্রিশালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহিত উল আলম এর বিরুদ্ধে ৫ কোটি ১২লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে আদালতে মামলা হয়েছে।

দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনে অধ্যক্ষ মো: নুরুল বাকী খান জেলা ময়মনসিংহের বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে। (মামলা নম্বর ৪, তারিখ ৩০/৮/১৭)

দায়েলকৃত মামলায় অধ্যক্ষ মো: নুরুল বাকী খান উল্লেখ করেন, ত্রিশালে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসাবে কর্মরত অবস্থায় থাকা কালে ড. মোহিত উল আলম ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে উপাচার্যের জন্য ইয়ার মার্ক করা বরাদ্দকৃত বাসভবনে বসবাস করেন। তা সত্ত্বেও বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদানের পর হতে প্রতি মাসে বাড়ি ভাড়া বাবদ বিশ্ববিদ্যালয়ের তহবিল হতে ৫০ হাজার টাকা করে ২৩ লাখ টাকা বিভিন্ন ভাউচারের মাধ্যমে উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছেন। ঢাকায় তার বাসায় আসবাবপত্র ও ইলেক্ট্রনিক সামগ্রী ক্রয় বাবদ ২৫ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন। তিনি তার বাসা বাড়ির জন্য বিশ্ববিদ্যালয় তহবিল হতে প্রতিমাসে স্টেশনারি, ডিশ বিল, গ্যাস বিল, বিদ্যুৎ বিল, পানির বিল, ইন্টারন্যাট, টেলিফোন, মোবাইল,পত্রিকা বিল ইত্যাদি বাবদ ৭ লাখ ২০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন। বিভিন্ন মোবাইলে ৬ হাজার টাকা মোবাইল বিল উত্তোলনের ঘটনাও রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। যোগদানের পর হতে ডিএ বাবদ ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা উত্তোলনের কথা রয়েছে। উপাচার্য নিয়োগের পর ৬ লাখ টাকা করে মাষ্টার রোলে ৬০ জন কর্মচারী নিয়োগ দিয়ে ৩কোটি ৬০লাখ টাকা উৎকোচ গ্রহণ করা হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক বিল্ডিং নর্থ এর ভ্যার্টিক্যাল এক্সটেনশন কাজের প্রায় ২২কোটি টাকার কাজের দরদাতা ৪টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে মো: আব্দুস সালাম (জেভি) সর্বনিন্ম দরদাতা হলেও তাকে কাজ না দিয়ে দ্বিতীয় সর্বনিন্ম দরদাতা ভালুকা থানা বিএনপি ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নির্বাহী কমিটির সদস্য সভাপতি ফখরুদ্দিন বাচ্চু‘র প্রতিষ্ঠান মো: শামসুজ্জামান ভাওয়াল কনস্ট্রাকশন(জেভি)কে বিপুল অংকের উৎকোচের বিনিময়ে কাজ প্রদান করেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮০ কাজ উৎকোচের মাধ্যমে ফখরুদ্দিন বাচ্চু‘র মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানকে প্রদান করেন।

এতে আরও বলা হয়, ১ম বর্ষের ভর্তি পরিক্ষার সম্মানী বাবদ পুর্ববর্তী উপাচার্য অধ্যাপক ড. গিয়াস উদ্দিন আহমেদ ১৫ হাজার টাকা করে গ্রহণ করতেন পরবর্তীতে সেটি ১লাখ টাকায় উন্নীত করে তিনি তা গ্রহণ করেন। তিনি সরকারি জ্বালানি ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রমোদ ভ্রমণে যান। ২০১৬ সালে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভ্রমণের সময় পাজারো জিপটি দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়। এর ব্যায় বাবদ বিশ্ববিদ্যালয় হতে ১২ লাখ টাকা ব্যয় করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন স্থাপিত (২০১৭ সালে) প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ৪৫ জন ছাত্রছাত্রী ভর্তি হওয়া স্বত্ত্বেও তিনি তার পিএস মো: আব্দুল হালিমের মাধ্যমে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন ও ইন্টারভিউ ছাড়াই ১০ লাখ টাকা করে উৎকোচের বিনিময়ে ৮জন শিক্ষক নিয়োগ দেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, তিনি বেআইনী ভাবে ও এখতিয়ার বহিভুত ভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ কোটি ১২ লাখ আত্মসাৎ করেছেন। এ ব্যাপারে ১৯৪৭ সনের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অপরাধ আমলে নিয়ে বিবাদীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আদেশ দানসহ সাক্ষ্য গ্রহণ করে সুবিচারের আবেদন জানান হয়েছে।

বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট মোজাক্কির হোসেইন জাকির। মামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. সুব্রত কুমার দে, পরিচালক (অর্থ ও হিসাব), মো: নজরুল ইসলাম, উপ পরিচালক (অর্থ ও হিসাব), রাধেশ্যাম, উপ পরিচালক (অডিট), মো: আব্দুল্লাহ আল মামুন, সহকারী পরিচালক (অর্থ ও হিসাব), মো: এনামুল হক, হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা, অধ্যাপক এ এস এম শামসুর রহমান, ট্রেজারার, মো: হাফিজুর রহমান, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন), কাজী মাহবুব ইলাহী চৌধুরী, উপ পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন)কে স্বাক্ষী করা হয়েছে।

 

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

BRTA
Bay Leaf Premium Tea
Intlestore

জাতীয় -এর সর্বশেষ

Hairtrade