Bahumatrik :: বহুমাত্রিক
 
৪ পৌষ ১৪২৫, বুধবার ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ৯:২৫ পূর্বাহ্ণ
Globe-Uro

আশুলিয়ায় পানির ট্যাংকের দেয়াল ধ্বসে মা-ছেলের মৃত্যু


১১ জুন ২০১৮ সোমবার, ১১:০৭  পিএম

তুহিন আহামেদ, নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুমাত্রিক.কম


আশুলিয়ায় পানির ট্যাংকের দেয়াল ধ্বসে মা-ছেলের মৃত্যু

 

সাভার : আশুলিয়ায় একটি বাড়ির পানির ট্যাংকের দেয়াল ধ্বসে মা ও ছেলের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় নারী ও শিশু হাসপাতালে নেয়া হলেও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর পঙ্গু হাসাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার ভোরে আশুলিয়ার বাংলাবাজার (গুমাইল) এলাকার বাছির উদ্দিন পালোয়ানের ছেলে নুরুল হক পালোয়ানের নির্মিত একটি শ্রমিক কলোনীতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো- গাইবান্ধার সাঘাটা থানাধীন কামালের পাড়া এলাকার মৃত মন্টু মিয়ার স্ত্রী সেলিনা বেগম (৪০) এবং তার প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া শিশু পুত্র সিয়াম (৯)।

নিহত সেলিনা তার দুই ছেলে ও ভাইকে নিয়ে আশুলিয়ার বাংলাবাজার এলাকার নুরুল হক পালোয়ানের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় হা-মীম গ্রুপের তৈরী পোশাক কারখানায় হেলপার হিসেবে চাকুরি করতো। আহতদের মধ্যে রয়েছেন পোশাক শ্রমিক সেলিনার বড় ছেলে সেলিম (২০) ও তার মামা টুটুল (৩০)।

প্রত্যক্ষদর্শী আহত সেলিম জানায়, রাতে তার মা সেলিনা, ছোট ভাই সিয়াম, মামা টুটুলকে নিয়ে একসাথে শুয়ে ছিলো। ভোর রাতে বিকট শব্দে তার ঘুম ভেঙ্গে গেলে দেখেন তার মা ও ভাই দেয়ালের চাঁপায় নিচে পড়ে রয়েছেন এবং মামা টুটুলও চাঁপা পড়ে চিৎকার করছেন। এসময় সে প্রতিবেশীদের ডেকে আনলে তারা মা ও ছোট ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধার করে এবং মামা টুটুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অটো চালিয়ে সংসারের যোগান দেয়া সেলিম আরও জানান, তাদের ঘরের দেয়াল ঘেষে শ্রমিক কলোনীর টয়লেট এবং তার উপর ইট-বালু দিয়ে তৈরী করা বিশাল পানির ট্যাংকি রয়েছে। প্রতিদিন ভোর রাতে মটর দিয়ে ওই ট্যাংকিতে প্রায় পাঁচ হাজার লিটার পানি উঠানো হয়। সেই পানি শ্রমিক কলোনীর ১০ কক্ষ লোকজন ছাড়াও পার্শ্ববর্তী একটি বাজারের প্রায় অর্ধশত দোকানে সরবরাহ করা হয়। সোমবার ভোর রাতেও পানি তোলা হলে ট্যাংকিটি ধ্বসে তাদের কক্ষের উপর পড়লে এ মর্মান্তি দূর্ঘটনা ঘটে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল কালাম আজাদ বলেন, দেয়াল ধ্বসে নিহত শ্রমিক সেলিনা ও তার শিশুপুত্র সিয়ামের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। এঘটনায় একটি মামলা দায়ের করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এদিকে শ্রমিক নিহতের খবর শুনে হা-মীম গ্রুপের বাংলাবাজার কারখানার জিএম মাসুদ ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এসময় তিনি নিহতদের দাফন-কাফন ও তাদের গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার সকল ব্যয়ভার কারখানার পক্ষ হতে বহন করার প্রতিশ্রুতি দেন।

বহুমাত্রিক.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।